চারুমান্নান

মুক্তিযোদ্ধার রক্ত কথন

Decrease Font Size Increase Font Size Text Size Print This Page

মুক্তিযোদ্ধার রক্ত কথন

রক্তমাখা পিরান, আমার বন্ধুর বাহে
সেই একাত্তরে যুদ্ধে গিছুনু হামরা।
বন্ধুরা ৬/৭ জন আইছিনু এক দলে,
সমুখ যুদ্ধ হানাদার সাথে;
কার্তুজের বিদীর্ণ আওয়াজ
হটাত এক বন্ধুর গাওত লাগল হানাদারের গুলি,
লুটে পরল ঘাসত।

সবুজ ঘাসত রক্তের ছোপ ছোপ দাগ,
দানা বেঁধে আজও মুক্তির গান গায়।
ঐ বন্ধু পিরান নিয়া গেনু বন্ধুর বাড়ী,
স্বাধীন পতাকা ‍লিয়া
তয় ‍বন্ধুর ঘর নাই,
পুরে ছাই,বাবারে খুঁজলাম,মারে খুঁজলাম, ভাইবোন-রে
কেই আর এই দুনিয়ায় নাই!
হানাদার কুত্তারা বংশ সাবার কইরা দিছে বাহে।

সেই দিন থেকে বন্ধুর পিরান,আমার কাছত
এত বছর পরও বন্ধুর পিরান থেকে
বন্ধুর শরীরের রক্তের উৎকট গন্ধ
স্বাধীনতার গাওত! মুক্তির উন্মাদনা জেগে উঠে।

১৪১৮@২৬ অগ্রহায়ণ,হেমন্তকাল

শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।


5 Responses to মুক্তিযোদ্ধার রক্ত কথন

  1. imrul.kaes@ovi.com'
    শৈবাল জানুয়ারী 8, 2012 at 8:06 অপরাহ্ন

    অপূর্ব ! আপনার এমন কবিতা আগে পড়িনি কখনো ।

    আঞ্চলিকতা কয়েকটা পঙক্তিতে কেটে গেলো যেন …

  2. touhidullah82@gmail.com'
    তৌহিদ উল্লাহ শাকিল জানুয়ারী 9, 2012 at 3:50 পূর্বাহ্ন

    ভাল কবিতা । আঞ্চলিক ভাষায় বলে হয়ত বেশী ভাল লেগেছে । শুভকমনা রইল কবি ।

  3. রাজন্য রুহানি জানুয়ারী 20, 2012 at 7:03 পূর্বাহ্ন

    বেশ ব্যতিক্রম। সোঁদামাটির ঘ্রাণময় কবিতা।
    :rose:

You must be logged in to post a comment Login