Home » Entries posted by আহমেদ মাহির
mahirmahir3@gmail.com'
  লেখক: আহমেদ মাহির
  আমার সম্পর্কে তেমন কিছুই বলার নেই । আমি একজন সাদামাটা মানুষ । জীবনের পেরিয়ে আসা সব ক্ষেত্রেই সাদামাটা । সন্তান হিসেবে সাদামাটা ; মা - বাবাকে তেমন করে কখনোই খুশি করতে পারনি । পড়াশুনায় সাদামাটা । লেখালেখি আমার শখ ; সেক্ষেত্রেও আমি সাদামাটা মানের । বর্তমানে ' আমেরিকান আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় , বাংলাদেশ ' এ 'বিজ্ঞাপন' বিভাগে পড়ছি । আশা করা যায় সেখানেও আমি নিজেকে সাদামাটা বলে প্রমান করতে পারব । ...

বেঁচে আছি তোমাতেই!

এখনও তোমাতেই বেঁচে আছি দুরত্ব পরিমাপক নেই কোনো, নেই লোনা জলের ঝরনাধারা; মাটির সোদা গন্ধে চোখ বুজে এলে সে অন্ধকারও তো অন্য কেউ নয় সূর্যাস্তের শেষ আলোটুকু যখন ধুকপুকের অনুভুতি জাগায় পুনঃ, দীর্ঘশ্বাসের গলা চেপে ভাবি, এখনও তো তোমাতেই বেঁচে আছি । বেঁচে আছি এখনও তোমাতেই নিয়মগুলোকে চুর্ণ করে দেবার শান্তনা নেই, নেই আর প্রবোধের […]

১।। রাতজাগা পাখিটা মাঝে মাঝেই জানালায় এসে উঁকি দেয় শোনায় হারানো কবিতাগুলো ; সেই বসন্তের আগেই ঝড়ে যাওয়া কবিতাটা , বৈশাখে কথা নেই বার্তা নেই হুট করে মুখ থুবরে পড়া গাছের মতন কবিতাটা এমনকি দাউদাউ করে জ্বলতে থাকা আগুনের মাঝে যে কবিতাটি ক্লান্ত বেশে ঘুমিয়ে পড়েছিল – সে কবিতাটিও শোনায় রাতজাগা ওই পাখিটা । জোনাকির […]

Continue reading …

অপেক্ষা করেছি শত মহাকাল এপিটাফের প্রস্তরখন্ডের মতন বুকের মধ্যিখানে শব্দমালা জড়িয়ে । চোখে পড়েনি বুঝি এ শব্দমালা ? অথচ সকাল-বিকাল-গোধুলী প্রহরে এ গোরস্থানের পথ মাড়িয়েছ কত কখনো আঁড়চোখেও দেখনি এ শব্দমালা ? কখনো চঞ্চল পায়ের ব্যস্ততায় কিংবা অলস পদচারনায় উড়ে আসা ধুলো এ এপিটাফের বুকে জমেছে ক্ষনেক্ষনে আর তাই যে অশুভ ক্ষনে – অজানা কৌতুহলে […]

Continue reading …

বিশ্বাস !

16 Comments

শৈলীতে চোখ রাখা দীর্ঘদিন পরে । কখনো নিয়মিত চোখ রাখতাম , যখন কলমের সাথে সখ্যতা ছিল । পরের সময়টা শুধুই বিচ্ছেদের । বিচ্ছেদ কলমের সাথে, শৈলীর সাথে, আরও কতকিছুর সাথে, কত কারো সাথে । আজ আসা নিছকই কিছু ছবি দেখাবার জন্যে । বিনয়ের সাথে জানিয়ে নিচ্ছি, আমি ছবি তুলতে জানি না । আমি গল্প করতে […]

Continue reading …

দ্বিবিধ

14 Comments

নিয়তকালের বাঁধন হারায়ে নামে অশ্রুজল সফেদ মেঘের আঁচল বেয়ে গড়ায়ে পড়ে যত্রতত্র । অপলক নির্দয় হৃদয়ে দেখে যাই ক্রন্দনধারা আবার ছাপোসা মধ্যবিত্তের মতন মরচে ধরা হৃদয় ভেসে যাবার ভয় ; মুখ গুঁজি ভাতের জ্বালে কিংবা ঝুঁকে পড়ি ভোতা নিবের কলমে । নিত্যকার জীবন কিংবা লুকোচুরি নিজেতেই ! অশ্রুজল আর তার আড়ালে শত ভীতি আর দুর্বলতার […]

Continue reading …

যুগে যুগে সভ্যতা পরিবর্তিত হয়ে নতুন সভ্যতা পেয়েছি আমরা। নতুনকে পেতে বার বার নিয়মকে জলাঞ্জলি দিয়ে নতুনকেই নিয়ম বানিয়েছি আমরা। নতুনের খোঁজে চিরকাল সাধনার সাধক হওয়া সেই থেকেই শুরু। কবিতা স্টল সেই সাধনার পথে হাঁটতে চায়। গড়তে চায় নতুন এক সভ্যতা। কবিতা স্টল হচ্ছে এক ফর্মার কবিতার ছোট কাগজ। কোন বড় ক্ষেত্র না হলে কবিতা […]

Continue reading …

দগ্ধ অনুভূতি

15 Comments

জানালার গরাদ গলে লোনা-শেওলা ধরা দেয়ালটিকে দেখে যাই প্রতি রাতে । এঁদো গলি বেয়ে রহস্যময় দৃষ্টি নিয়ে ধোঁয়ার বেশে কুয়াশা বয়ে যায় – গরাদ গলে সে ধোঁয়ার ছন্দ কাটে নিকোটিনময় ধোঁয়া ; অপলক চেয়ে দেখি ধোঁয়াদ্বয়ের ছন্দহীন লুটোপুটি ! নিকোটিনের গাদ পড়া এ ফুসফুসে জ্বালা ধরায় নগ্ন আঙুলের ফাঁক গলে আসা নিকোটিন ; ঠোঁটের কোনে […]

Continue reading …

শৈশবের দিনগুলো বড় অদ্ভুত ছিল ভাঙাচোরা নড়বড়ে ঘরটিতে বেশ শক্ত খুঁটির ওপর দাঁড়িয়ে ছিল ভালোবাসা সম্পর্কের বন্ধনে । ভালোবাসা ছিল দাদীমা’র হাতে কাঁঠাল পাতা দিয়ে আঁকা পানের খিলির প্রতিবিম্বে কিংবা তোষকের নিচে লুকোনো গলিতপ্রায় ফানটা লজেন্সের মোড়কে । ভালোবাসা ছিল রোজ সকালে পুকুরপারে দাদীমা’র দুধ-শাদা চুলে সোনালী রোদের ঝিকিমিকি খেলায় ! শৈশবে ভালোবাসারা ঘুরে বেরাত […]

Continue reading …

স্বপ্নি , ভীষন কথা বলতে ইচ্ছে করছে তোমার সাথে । জানি না , কোথায় আছ , কেমন আছ । কেমন চলছে জীবন ? সব সাদামাটা প্রশ্ন , তাই না ? এভাবে তোমার কাছে খুব একটা জানতে চাওয়া হয় নি কখনো । তবু আজ খুব করে জানতে ইচ্ছে করছে । তোমাকে ছাড়া জীবনের পথ চলতে হচ্ছে […]

Continue reading …

আকুতি !

10 Comments

এক মহাকাল পেরিয়ে মরিচিকা স্বপ্নমালারা অবিরত তুলির স্পর্শে আঁকে কোনো অন্য ভুবনের শব্দমালা ; আলোকবর্ষের পথ পেরিয়ে সে অশ্রুধারার পথ শুকিয়ে যায় কোনো খরস্রোতার মতই ; শতাব্দীর ওই মহিমা কী অবলীলায় হারিয়ে যায় ! এ ক্ষনিকের চপলতা , সদা গোপনে লুকোনো এ ভালোবাসা , ব্যাকুল হৃদয়ের তুচ্ছ শব্দমালাও হারিয়ে যাবে , জানি ; তবু যে […]

Continue reading …

১।। বিষাদের সুর ওই পুঞ্জিত মেঘমালায় মিলে গিয়ে শুভ্র-ধুসর বিষাদ-বর্ণ ছড়ায় ; কবেকার জমে থাকা মন-কোনে ব্যথা , গোধুলি-বিষাদে স্মৃতি যেন আজ রূপকথা ! আঁধার নামে – বড় নীরবে ; অস্ত যায় রবি সন্ধ্যাতারার স্পর্শে হারায় আঁধারের কবি ! ২।। বিদ্যুতের তারে মারা পড়ে শালিক আর কাক ; সৌখিনের সখ মেটাতে বিষ্ময়কাতর দৃষ্টি নিয়ে আপন […]

Continue reading …

বচসা !

13 Comments

অলিতে-গলিতে বর্বর বচসায় মেতেছে সবে , অযথাই কোলাহল আর অর্থহীন উন্মাদনা সেসব বর্বরতার পালে লাগায় পুঁতি-গন্ধময় হাওয়া । কবিদের হাতে কলম নেই , বড় অসহায় দৃষ্টি আজ তাদের ; প্রেমিকের হাতের গোলাপ শুকিয়ে শীতের পাতার মতই ঝরে পড়ে ; কৃষকের লাঙ্গলের ফলা চুরমার ; ভেঙ্গে যাওয়া দেবী-প্রতিমার চোখে হতাশা আড়ালে রয় না আর । অলিতে-গলিতে […]

Continue reading …
Page 1 of 3123