Home » Entries posted by ইরতিয়ায দস্তগীর
irtiyazdustagir@gmail.com'
  লেখক: ইরতিয়ায দস্তগীর
  আমি একজন নবীশ... বাবা হচ্ছেন- এম হক মা হচ্ছেন- কে এন বেগম পোলারা হচ্ছে- ইশতিয়াক আর ইমতিয়াজ পোলাদের মা হচ্ছে- মটু। পৈতৃক ভিটা ছিলো- দড়ানিপাড়া। irtiyazdustagir@gmail.com

স্বস্তি

কী নিয়ে গর্ব করবো? আমার আর কী আছে এই পোড়া আর না পাওয়া জীবনে? না পেলাম বাবা-মায়ের কাছে, না পেলাম ভাই-বোনদের কাছে, না পেলাম দেশের কাছে! মানুষের জীবনে তো কোনো না কোনো একটি দিক দিয়ে কিছু একটা অন্তত প্রাপ্তি থাকা প্রয়োজন; যে প্রাপ্তিটুকু তার মাথাকে উঁচু করে তুলবে অন্যের কাছে। পরিতৃপ্তি বয়ে আনবে আজন্ম বৈরী […]

(আন্তন চেখভ এর THE HEAD-GARDENER’S STORY অবলম্বনে) নুরু ব্যাপারীর বাগানে ফুলের নীলাম উপলক্ষ্যে আমরা কতিপয় সেখানে উপস্থিত ছিলাম। যেখানে আমি সহ জমির মালিক আমার এক প্রতিবেশী ছিলেন, ছিলেন এক তরুণ কাঠ ব্যবসায়ি। কাজের লোকেরা আমাদের কেনা অসাধারণ জিনিসগুলো বাঁধাছাঁদা করে ট্রলিতে উঠাতে থাকলে আমরা বাগানে ঢোকার মুখেই বসে বসে  একটি বিষয়ে আলাপ করছিলাম। এপ্রিলের সকালে […]

Continue reading …

সময়

11 Comments

কর্পোরেট জীবনের বর্ণালী আঙিনায় দিন দিন গৌণ হয়ে যাচ্ছে মানুষের মূল্যবোধ। তার জৌলুস ছিনিয়ে নিচ্ছে জীবনের ছোট ছোট সুখগুলোকে। ইচ্ছে থাকলেও সময় মতো ফেরা হয় না একান্ত নিজের বৃত্তটিতে। অন্যদের চোখে কিভাবে নিজকে আরো ঈর্ষনীয় করে তোলা যায়, বৈভবের দিক দিয়ে নিজের আশপাশ কতটা আরো উঁচুতে উঠিয়ে নেওয়া যায়, সেই বাসনাই যেন রাত্রিদিন ঘুরপাক খায় […]

Continue reading …

সন্ধ্যার পরপরই আকাশে বড়সড় গোলগাল এক রূপালি চাঁদ দেখা যায়। চাঁদের সেই আলোতে গাছপালা আর মানুষের ঘরবাড়ির ওপর লেপটে থাকা রাতের অন্ধকারকে কেমন যেন নীলাভ মনে হয়। সাপ্তাহিক হাট থেকে ফিরতে ফিরতে আজ বেশ কিছুটা দেরি করে ফেলেছে সমির। নয়তো সূর্য ডুবে যাওয়ার পর অবশিষ্ট গোধূলি আলোয় নিশ্চিন্তে বাড়ি ফিরে যেতে পারে সে। কিন্তু আজই […]

Continue reading …

শুভ জন্মদিন রিপন কুমার দে (মামদো ভূত) প্রথম দিকে রিপন কুমার দে আমু ব্লগে মামদো ভূত নিকে লিখতেন। শৈলী প্রতিষ্ঠার প্রারম্ভিক সময়গুলোতেও কিছুদিন এই নিকে লেখালেখি করেছেন।  আজকাল আর এই নিকে তাকে কোথাও দেখা যায় না। হয়তো ব্যস্ততা তার অন্যতম কারণ। আমি শৈলীর একজন গর্বিত সদস্য হিসাবে রিপন কুমার দে’কে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা আর বলি […]

Continue reading …

একটু আড়াল পেলে বোঝা যায় মানুষ হিসাবে এই আমি কতটা মানুষ আসলে, অথবা মনুষ্য বর্মের ভেতরে সবার দৃষ্টির অগোচরে লোকালয়ে ভ্রাম্যমান নর্দমার পঙ্কিলতা বেষ্টিত নিকৃষ্ট কোনো বর্ণচোরা পরিযায়ী, পারি না করতে আড়াল, শিক্ষাঙ্গনের মেঝেতে আঠারো বছর পদতল ক্ষয় করে, পিতার ভূমিকা যখন প্রধান হয়, জগতের কিশোর-কিশোরী হয়ে ওঠে সন্তানের ছায়া। রাত্রির অন্ধকার গাঢ় থেকে আরো […]

Continue reading …

“আমার গল্পটি হয়তো পরকীয়ার কোপানলে দগ্ধীভূত হতে পারে। হতে পারে কোনো কুলবালা নাক সিঁটকিয়ে বলে উঠবেন, মর জ্বালা! ছেনালির গল্প শুনবার সময় নাই! কিংবা কোনো কট্টরপন্থী বলে উঠতে পারেন, এভাবেই আমাদের মেয়েগুলো নষ্ট হচ্ছে। বেশরম! কিন্তু প্রিয় পাঠক, আমাকে যে এ গল্প বলতেই হবে! আমার কপালে বেশরম বা ছেনাল তকমা জুটলেও আমাকে কেউ মুখ চাপা […]

Continue reading …

শৈলার (শৈলারনী)বৃন্দ, শুভেচ্ছা নিন। এটি আমার স্কুল-কলেজের পিতৃদত্ত নাম নয়। অনেক খাটা খাটুনি করে এই নামটি তৈরি করিছি। কি ভাবে ব্লগিং করবো বুঝতিছি তাও খানিকটা সময় দর্কার। আরো দুই ব্লগে রেজিস্ট্রি করিছি। এখেনে সব্বাই বেশ লেখেন। ধন্যবাদ।

Continue reading …