‌কবিতা

 জুলিয়ান সিদ্দিকী

সম্ভাবনার মরিচীকা

খরাদহে পুড়ে গেলে কোথা যে হারায় তার সবুজের আলোয়ান মৃত্তিকার কোলে কাঁদে ধূসর সময়, বসন্তরা হেঁকে যায় নিদ্রাহীন চাঁদের আলোয়, প্রেম তবু সুদূরের মাঝি। মঙ্গাক্রান্ত শীর্ণ মায়ের বিশুষ্ক স্তন চুষে চুষে ত্যাক্ত শিশু হেলে পড়ে নিবিড় ধূলায় বিশুষ্ক খড়ের হাহাকারে ক্ষুৎ-পিপাসা বাড়ায় অযাচিত ক্লান্তি; শ্রান্তিতে শ্রাবণের মেঘ হিমালয়ের কোলে বুঝি স্থবির কৃষাণের শ্রমিক-হৃদয় শঙ্কার ছিছিক্কারে […]

 আহমেদ মাহির

কিশোরটি !

এক পত্রিকার রিপোর্টার আমি ; পত্রিকাটির নাম বলছি না । আমার ‘রিপোর্টার লাইফ’ আজ বহু বছরের সে সূত্রে রিপোর্টও করা হয়েছে বহু করেছি সাধারনধর্মী রিপোর্ট আবার ব্যতিক্রমধর্মীও… আশুঃ ঈদ উপলক্ষে আমার সাধারন রিপোর্টগুলির পাশাপাশি চালাচ্ছিলাম এক ব্যতিক্রমধর্মী রিপোর্টের কাজ । রিপোর্টের নাম – ‘হাসিমুখী মানুষের গল্প’ । উদ্দেশ্য ছিল, ঈদের আনন্দের সাথে বারতি কিছু আনন্দ […]

 আজিজুল

আমি রুদ্র হতে চাইনি

আমি রুদ্র নই, একফালি চাদও নই যে কবিতা’র জন্ম দিবো। অদ্ভুত খেয়ালী এক মানুষ আমি। আমি কবি নই, কষ্টের ছন্দে কবিতা লিখি। বিশ্বাস করো- আমি কবি নই। আমি রাজপথে উত্তাল ঢেউয়ের মাঝে সম্মিলিত সামাজিক গোষ্ঠির এক জীবন্ত প্রানী যেখানেই মানুষের সংগা আছে- আমি সেখানেই যাই ছুটে, আবিরাম জোৎস্নায় তাই স্বাধীনচেতা কবিরা আমায় কবি বানিয়ে দিলে […]

 অরুনাভ পাভেল

মধ্য রাতের গল্প

চেনা এই শহরে রাতজাগা অনেক পাখি উড়ে ডানা ঝাপ্টে তারা আমাকে জানিয়ে যায় আমি এখনো জেগে আছি, জেগে জেগে স্বপ্নের জাল বুনে চলেছি। দুরন্ত স্বপ্ন গুলো ছুটছে ঝড়ের বেগে কেমন জানি দিশেহারা, বাইরে নিস্তব্ধ আকাশ জ্বলছে কিছু তারা, নির্ঘুম রাতে একটানা ডেকে চলে ঝিঝিপোকারা।

 রিপন কুমার দে

মা

মা

[বি:দ্র: পোস্টটি ২০০৯ সালের “মা” দিবসে প্রথম প্রকাশিত] [আজ মায়ের সাথে অকারনে রাগ করলাম। অনেকটা ইচ্ছে করেই। আমার মা আমার থেকে হাজার মাইল দুরে। প্রতিদিন আমার ফোনের জন্য অপেক্ষা করে বসে থাকেন মা। না দিলে ধৈর্য্যহারা হয়ে নিজেই করে বসেন। মা, এত ভালবাসা কেন তোমার? এত কষ্ট দেই, তারপরও ভালবাসা ফুরায় না কেন তোমার? রাগারাগির […]

 শৈবাল

দৈনিক “স্বপ্ন প্রকাশ”

চরকায় ঘুরছে চিন্তাসমগ্র চক্রাকারে আড়ষ্ট ক্রমাগত করোটির কারাগারে , তাই তোমার আমার অস্থিরতা নিনাদ করে কুঁচকানো কপালে । চাই একটি দৈনিক “স্বপ্ন প্রকাশ” ব্যক্তিগত সম্পাদনায় প্রচার হবে স্বপ্নগুলো , কালো শিরনামে আর রঙিন বিজ্ঞাপনে যা ছিল উপেক্ষিত অবহেলায় বাস্তবতায় , আর হবেনা পাণ্ডু ;হলুদ সাংবাদিকতায়, তাহলে বেশ হকার হয়ে জানিয়ে যাব তোমার আমার খেয়ালগুলো স্বপ্নাহত […]

 শৈবাল

নস্টালজিআর আকাশ

নস্টালজিআর আকাশ … শৈবাল অনেকদিন ধরে অনেক পরিবর্তনের পরে পরিবর্তনেরও পরিবর্তন হয়েছে অনেকটা , তবে কিছু অনুভূতি বেশ অবিকৃত থেকে পুরনো হতে থাকে ;প্রচীন ঈশ্বরমূর্তির মত । যেমন আমার ছেলেবেলার আকাশ তাকিয়ে থাকতাম অপলক দৃষ্টিতে এক ঝাঁক কাক উড়ে গেলে ভাবতাম সব কাক একত্রে বুঝি ;ভয়ঙ্কর আধাঁর আঁকে আর ভোর হতেই আধাঁর ভেঙে কাক হয়ে […]

 আহমেদ মাহির

প্রতি রাতে ফিরে আসে

প্রতি রাতে শয্যা যাই বাসি-গন্ধ-মাখা ক্লান্ত অলস বিছানায় ; এলো চুলে অনুভব করি তোমার হাতের স্পর্শ । তোমার স্পর্শ ফিরে আসে প্রতি রাতে নিশির ডাকের মত করে আমার ক্লান্তিময়তায় । যেমনি ফিরে আসে ; ফিরে ফিরে আসে প্রতি রাতে সেই চালতা ফুলের সুবাস , বিমূর্ত জ্যোৎস্নার আলোহীন সন্ধ্যাগুলো আর বাস-স্টপেজে বৃষ্টির জলে ভেজা অপেক্ষারা । […]

 আজিজুল

ভালোবাসার জেল হাজত

আমাদের ভালোবাসায় মরিচা ধরেছে অদ্ভুত রঙ তার। খানিক বেগুনী আভা তোমার লাল-মেরুন রঙ্গা শাড়ি যেন সাক্ষাত দেবী! ভ্রম হয় তবুও স্মৃতি থেকে হাতড়ে বের করি আরও কিছু বিচলিত ঘটনাবলী… ধাতব হৃদয়, বিকেলের আদ্র-নোনা বাতাসের দৈহিক সংস্পর্শে থেকে থেকে মরিচা পড়ে। ভার্সিটি বাসে দাঁড়িয়ে থাকা এতসব মানুষের ভিড়ে পিষ্ট হয়েও ভাবতে থাকি, তুমি আছো মেরুন রঙ্গা […]

 আজিজুল

শূন্য

আজকাল আর কলম দিয়ে লিখি না। ব্যার্থ প্রেম নিয়ে ঘৃণা জন্মায়না, ভালবাসিনা। অনুভূতি শূন্য। আজকের মাসে আধা বেতনভাতা নিয়ে দুশ্চিন্তা আসে না। ভবিষ্যত ভাবি না, ভাবলেও মনে রাখি না অনুভুতি শূন্য। সকালে সব অপয়া ভর করলে পরে সমষ্ত দিন কেমনে যাবে, সেইসব দুশ্চিন্তা- আজ আর ভর করে না আনুভুতি শূন্য। এরপরে, প্রকান্ড জেদ আর নির্বুদ্ধিসম্পন্ন […]

 আজিজুল

কুমিল্লা ষ্টেশন

জীবিকার সন্ধানে আলোতে মুখ ডুবিয়েছিলাম আশা ছিলো – ভোর হবে। হলোনা কেন হলোনা- অজানা। তবুও দরদ মিশ্রিত কন্ঠে কেউ জানতে চাইলোনা আছি পড়ে কুমিল্লা ইষ্টেশনে গন্তব্য- ঠাকুরপাড়া জোড়পুকুরপাড়ে যাওয়া আর হলোনা ভোর হবেনা- হলোনা কেন হলোনা-অজানা হয়তো নিগৃহীত গৃহীনির খবর কেউ জানে না নিথর দেহ নিতে কেউ এলোনা কেন এলোনা-অজানা।

 রিপন কুমার দে

শাশ্বতিকীর আশীর্বাদ

আজ হঠাৎ করে ইচ্ছা হল ‘কঠিন’ একটা পোস্ট দিতে। কিন্তু কি দেই, কি দেই, করে শেষ পর্যন্ত জটিল(?) একটা কোবতে প্রসব করলাম। ‘ভয়াবহ’ জটিল!! এটা পড়ে যদি কারো ‘মাথা ঘুরতে’ থাকে অথবা শরীর ‘হালুডুলু’ করতে থাকে তাতে মামদো ভূত কোনভাবেই দায়ী থাকবে না, আগেই বলে দিচ্ছি!!! হার্টের রোগীদের বিশেষভাবে এর ধার দিয়েও না ঘেষার জন্য […]