কবিতাঃ-ভালো নেই বহুদিন

বিষয়: : পদ্য,সাহিত্য,‌কবিতা |

ভালো নেই বহুদিন

অজগরের বিবশ শরীরের মতো কী একটা রোগ,
এখনো আমাকে ছাড়েনি।
এখনো ভেতর বাড়ির বোবা চিৎকার-কোলাহলে,
ভেঙ্গে যাওয়া স্বপ্নেরা ফুপিয়ে কেঁদে বলে,
“আমি ভালো নেই”।
“আমি ভালো নেই”!

আমি ভালো নেই।
আমার বরফ-জমাট, ভীষণ অবশ মন
শীত বারান্দায় গুম হয়ে থাকে।
এমন ওমহীন-শীতল অসুখে
আমি তোমাদের ডাকিনি বহুদিন।

তোমাদের কিছু সুখী মুখ,
আয়েশি সুখের গল্প, চুপচাপ শুনে যাই।
গলিত স্বরের অট্টহাসিতে
ঠিকঠাক সমবায় করে যাই।
অথচ কী ভীষণ ক্লান্তি মনে!
আমি যেন শ্রান্ত কেমন!
তোমরা কেন বোঝনি বন্ধুরা?
তোমাদের এই উদ্বেগহীনতায়
আমি ভালো নেই বহুদিন।

তোমরা ভাবো,
এই হাতেই সুখমন্ত্র ছড়ি,
আধখসা চাঁদ,
কোন সুদর্শন এই চোখেই দেখে সোনালি কিন্নরলোক।
বন্ধুরা;
কেন বোঝনি আমার রোদ হারানো কষ্ট
আর ভীষণ বিবশ মন!
তোমাদের ভীড়ে অভিমানী আমি নিষ্ঠুর হতে থাকি
দিন-দিন আমি পর হতে থাকি
দিন-দিন আমি পর হয়ে যাই।

শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।

38 টি মন্তব্য : কবিতাঃ-ভালো নেই বহুদিন

  1. বুঝতে পারছি না।প্যারায় স্পেস দিয়ে বারবার আপডেট দিচ্ছি।কিন্তু একি রকম থাকছে।কর্তিপক্ষ একটু দেখবেন?

    rabeyarobbani@yahoo.com'

    রাবেয়া রব্বানি
    এপ্রিল 14, 2011 , 5:40 পূর্বাহ্ন

    • অন্য উপায়ে কাজটি করতে পারেন। আগে আপনার লেখাটি সম্পাদনায় যান, সেখানে সবকিছু ঠিকঠাক করুন, তারপর পুরো লেখাটি কপি বা কাট করে আপডেট না করেই বেরিয়ে আসুন শৈলীর মূল পাতায়। অন্য কোনো লেখার কমেন্ট বক্সে গিয়ে পেস্ট করুন। সেখানে স্পেস প্যারা বা মনের মতো করে লেখাটি সাজান। আবার লেখাটি কাট বা কপি করে আপনার লেখার সম্পাদনা অংশে যান, সেখানে পেস্ট করে আপডেট দিন। ব্যাস হয়ে গেল। :D

      রাজন্য রুহানি
      এপ্রিল 14, 2011 , 6:02 পূর্বাহ্ন

      • পারলাম না রাজন্য ভাই। তাই আবার বুলেটে ফিরে গেলাম। এই প্রক্রিয়াটা করেও হলো কেন বুঝলাম না।

        rabeyarobbani@yahoo.com'

        রাবেয়া রব্বানি
        এপ্রিল 14, 2011 , 6:26 পূর্বাহ্ন

        • আমি তো অবশেষে এ প্রক্রিয়াই বেছে নিয়েছি সমস্যার সম্মুখীন হওয়ায়। আমার কথা হুবহু ব্যবহার করলে তো হবার কথা, কেন যে হলো না। ~x(

          রাজন্য রুহানি
          এপ্রিল 14, 2011 , 6:56 পূর্বাহ্ন

    • এই সমস্যার সমাধানের এক মাত্র সহজ উপায় এর আগে এক বার বলেছিলাম হয়ত ভুলে গেছেন কিংবা আমার সে লেখা আপনার দৃষ্টিতে আসেনি। আবার বলছিঃ
      ক) আপনার মুল লেখাটা ওয়ার্ডে (২০০৩/২০০৭ যাই হোক)লিখেছেন নিশ্চয়।
      খ) ওখান থেকে কপি করে একটা নতুন টেক্সট ডকুমেন্ট খুলে তাতে পেস্ট করুন। (ইচ্ছে করলে এখানেও প্যারা সাজিয়ে নিতে পারেন আপনার ইচ্ছে মত)।
      গ) এবার এই নতুন খোলা টেক্সট থেকে আবার কপি করে ব্লগের পোস্ট লেখার বক্সে পেস্ট করুন।
      ঙ) আগে প্যারা ঠিক না করে থাকলে এখানে করে নিন। প্রয়োজন হলে বক্সের ডানে, মাঝে বা বামে যে ভাবে দেখতে চান সেটাও এখানেই ঠিক করে নিন।
      চ) অন্যান্ন সাজ সজ্জা যা করতে চান করে প্রকাশ বাটনে ক্লিক করুন।
      আশা করি আপনার সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে। ইচ্ছে করলে এই লেখাটিই সম্পাদনা করে আবার টেস্ট করে দেখুন।
      ছ) না হলে আবার একটু কষ্ট করে জানাতে দ্বিধা করবেন না।

  2. :-bd
    বাইরে কেবল মুখের হাসি,
    ভিতরে বিষাদ বিষের বাঁশি।
    আধখানা চাঁদ
    পুরোটা রাত
    অলিখিত দিচ্ছে ফাঁসি।

    সকল খেলায় তাল বিলিয়ে
    মন যে কোথায় যায় মিলিয়ে
    কেউ জানে না
    কেউ বুঝে না
    শুধু হলাম সমাজ-দাসী।

    গোপন কারণ মরতে থাকি;
    মন-আকাশে দুঃখ আঁকি
    একটু করে
    যাচ্ছি সরে
    আমা হতে আমায় নাশি।
    ……………..

    যেন আমার কথাগুলোই বললেন কবি। অশ্রুসজল শুভেচ্ছা।

    রাজন্য রুহানি
    এপ্রিল 14, 2011 , 5:53 পূর্বাহ্ন

    • গোপন কারণ মরতে থাকি;
      মন-আকাশে দুঃখ আঁকি
      একটু করে
      যাচ্ছি সরে
      আমা হতে আমায় নাশি।
      ……………..

      :-bd
      অনেক ধন্যবাদ রাজন্য ভাই।আপনার মত কবির পছন্দ হলো তাই আত্মবিশ্বাস বাড়লো।দোয়া রাখবাইন :D

      rabeyarobbani@yahoo.com'

      রাবেয়া রব্বানি
      এপ্রিল 14, 2011 , 6:31 পূর্বাহ্ন

    • না , কবির মুখে হাসি ফুটুক।আমি ও কেন আজ এই কষ্টের কবিতা দিলাম। জানিনা।

      rabeyarobbani@yahoo.com'

      রাবেয়া রব্বানি
      এপ্রিল 14, 2011 , 6:36 পূর্বাহ্ন

  3. অদ্ভুত লাগলো , এ যেন আমাদের নিজেদের কথা । নির্জনতা কিংবা নিঃসঙ্গতা ! সত্যিইতো আত্নর একলা থাকার ভিতরের ঘরটাতে নিঃসঙ্গ যেন প্রতিজন কবি । এই নৈরাশ্য এই যেন কবির নিজস্ব আবার এই মনে হয় ঘরের বাইরে নিরাশার আকুলতা ।

    মাক্স আর্নস্ট থেকে টুকে রেখেছিলাম তিনি এই আমি ভালো নেই এই অনুভূতিকে বলেন
    It is rather their aim to breakdown the barriers both physical and psychical , between the conscious and unconscious , between the inner and the outer world and to creat a superreality in which real and unreal medication and action , conscious and unconscious meet and mingle and dominate the whole life .

    জানি না কবি কি করে লিখলেন আমার মনের কথা
    এখনো ভেতর বাড়িয় বোবা চিত্‍কার কোলাহলে

    ভেঙ্গে যাওয়া স্বপ্নেরা ফুঁপিয়ে কেঁদে বলে

    আমি ভালো নেই
    আমি ভালো নেই
    আমি ভালো নেই

    আমার বরফ জমাট ভীষণ অবশ মন

    শীত বারান্দায় গুম হয়ে থাকে ।

    … জানি না এতো ভালো লাগলো কেন কথাগুলো । বৈশাখের শুভেচ্ছা ।

    imrul.kaes@ovi.com'

    শৈবাল
    এপ্রিল 14, 2011 , 6:08 পূর্বাহ্ন

    • মাক্স আর্নস্ট কে সেটা জানি না তবে উনি দারুন বলেছেন।লেখাটা আমিও টুকে রাখলাম। গল্পে কাজে আসবে।
      আমরা প্রত্যেকেই আলাদা এবং এক।আমরা মানুষ।এর বেশি কিছু কি বলব।হয়তো তাই আপনার কথাই বলতে পেরেছি আমি।তবে এমনি যেন বলতে পারি আমরা সবাই একে অপরের কথা। দোয়া করবেন।নববর্ষে শরীর মন ভালো থাকুক।

      rabeyarobbani@yahoo.com'

      রাবেয়া রব্বানি
      এপ্রিল 14, 2011 , 6:35 পূর্বাহ্ন

      • ম্যাক্স আর্নস্ট একজন সুররিয়ালিস্ট । আসলেই আমার প্রত্যেকেই আলাদা এবং এক !

        আপনিও ভালো থাকুন !

        imrul.kaes@ovi.com'

        শৈবাল
        এপ্রিল 14, 2011 , 6:47 পূর্বাহ্ন

  4. অজগরের বিবশ শরীরের মতো কী একটা রোগ,
    এখনো আমাকে ছাড়েনি।
    এখনো ভেতর বাড়ির বোবা চিৎকার-কোলাহলে,
    ভেঙ্গে যাওয়া স্বপ্নেরা ফুপিয়ে কেঁদে বলে,
    “আমি ভালো নেই”।
    “আমি ভালো নেই”!

    আমি ভালো নেই।
    আমার বরফ-জমাট, ভীষণ অবশ মন
    শীত বারান্দায় গুম হয়ে থাকে।
    এমন ওমহীন-শীতল অসুখে
    আমি তোমাদের ডাকিনি বহুদিন।

    তোমাদের কিছু সুখী মুখ,
    আয়েশি সুখের গল্প, চুপচাপ শুনে যাই।
    গলিত স্বরের অট্রহাসিতে
    ঠিকঠাক সমবায় করে যাই।
    অথচ কী ভীষণ ক্লান্তি মনে!
    আমি যেন শ্রান্ত কেমন!
    তোমরা কেন বোঝনি বন্ধুরা?
    তোমাদের এই উদ্বেগহীনতায়
    আমি ভালো নেই বহুদিন।

    তোমরা ভাবো,
    এই হাতেই সুখমন্ত্র ছড়ি,
    আধখসা চাঁদ,
    কোন সুদর্শন এই চোখেই দেখে সোনালি কিন্নরলোক।
    বন্ধুরা;
    কেন দেখোনি আমার রোদ হারানো কষ্ট
    আর ভীষণ বিবশ মন!
    তোমাদের ভীড়ে অভিমানি আমি নিষ্ঠুর হতে থাকি
    দিন-দিন আমি পর হতে থাকি
    দিন-দিন আমি পর হয়ে যাই।

    (কবিতাটি পুরোনো আর আর খান নামে একটা অনলাইন পেপারে ছিলো।অনেকটাই পরিবর্তন করা।)

    উপরের অংশটুকু (যেটুকু আপনার লেখা) কপি করুন তো। এখান হতেই উপরে লিখিত সম্পাদনায় ক্লিক করুন। সম্পাদনা পেজ এলে পুরনো লেখাটা (ছবি ছাড়া) ডিলিট করুন। এখন পেস্ট করুন। আপডেটে ক্লিক করুন। অপেক্ষা করুন। শৈলনীড়ে ফিরে আসুন। এখন দেখুন, সব ঠিক আছে।

    রাজন্য রুহানি
    এপ্রিল 14, 2011 , 7:11 পূর্বাহ্ন

  5. খুশিতে কান্নাকাটি করতে ইচ্ছা করতাছে।
    ইয়েস!
    হয়েছে।
    রাজন্য ভাই এখানে যা আছে,
    (*) :rose: %%-
    সব নেন।
    বিরাট ধন্যবাদ।ধন্যবাদের মা বাপ।
    আমি এবার গান গাই :-“

    rabeyarobbani@yahoo.com'

    রাবেয়া রব্বানি
    এপ্রিল 14, 2011 , 7:20 পূর্বাহ্ন

  6. চমৎকার হয়েছে কবিতাটি। :rose: :rose: :rose:
    প্রত্যেকের মন-গহীনে এমন একলা-একার ছবি আছে যা প্রকাশ করা যায় না। ভেতরে ভেতরে কেবল দহন-জ্বালা-পোড়া। পরিবেশের সাথে মন খাপ না খেলে আস্তে আস্তে এই দশা হয়। বিকারগ্রস্থ, নয় পাগল।

    bonhishikha2r@yahoo.com'

    বহ্নিশিখা
    এপ্রিল 14, 2011 , 7:29 পূর্বাহ্ন

    • কিন্তু দিদি, পরিবেশের সাথে এই যুদ্ধের নামই যে জীবন। এগুলি আছে বলেই না জীবন কত মধুর! গানটা শোনেননি? ” খোলা আকাশ কি এত সুন্দর হতো কিছু কিছু মেঘে যদি না থাকত”। এরই নাম জীবন।

      • ” খোলা আকাশ কি এত সুন্দর হতো কিছু কিছু মেঘে যদি না থাকত”।
        এত সুন্দর আর সহজ ভাবে ভাবা গেলে সব সময় মানুষের কোন সমস্যাই ছিল না।আমরা মানবজাতি বৈশিষ্ঠগুনেই বিষাদে ডুবি এই বিষাদ একটা বিশেষ অনুভুতি যা মানুষ চাইলেও ত্যাগ করতে পারে না।।আমরা হাসতে হাসতেও ভেতরে কাঁদি, আবার কাঁদতে কাঁদতে হাসি।
        যুদ্ধ করব, বাচতে চাইব আবার ভেতরে ভেতরে তার জন্য দীর্ঘশ্বাস ফেলব হ্যা আপনার মতেই বলি ,এটাই জীবন। এটা ভেতরের কবিতা নীল ভাই।

        rabeyarobbani@yahoo.com'

        রাবেয়া রব্বানি
        এপ্রিল 14, 2011 , 10:06 পূর্বাহ্ন

    • একেবারে একমত।
      চমৎকার লাগলেতো স্বার্থক।বিকারগ্রস্থ, নয় পাগল। যেমন তেমন শুদ্ধ , পাগল ও আছে কিছু।আমরা মানিয়ে নিতে পারি তাই সামাজিক।সবার সহ্য শক্তিও এক নয়।
      কিন্তু কবিতাটিতে এক ধরনের আমি ক্ষোভ দেখাতে চেয়েছি।

      rabeyarobbani@yahoo.com'

      রাবেয়া রব্বানি
      এপ্রিল 14, 2011 , 10:00 পূর্বাহ্ন

      • ক্ষোভটা ক্ষোভের মতো হয় নি, হয়ে গেছে আর্তনাদ; অসহায়ের বিবশ মন্ত্রে ধরাশায়ী জীবনের অভিমান আর উদগত কান্নায় গলা ধরে আসা বিষাদাবৃত্ত আঁকুতি।

        রাজন্য রুহানি
        এপ্রিল 14, 2011 , 11:22 পূর্বাহ্ন

        • আমি নিজেই কষ্টে পড়ে গেলাম । পি সি গেছে । এখন এখানে একটা লাইনে দেখোনি আমার না হয়ে বোঝনি হবে ।মোবাইলে আপডেট করতে পারছি না ।

          rabeyarobbani@yahoo.com'

          রাবেয়া রব্বানি
          এপ্রিল 14, 2011 , 4:19 অপরাহ্ন

  7. জন্মদিন বলে ব্যস্ত আছি। তারপরেও একবার ঢুঁ মারলাম।
    কবিতায় বিষাদ। :((

    sumayakter@gmail.com'

    বৈশাখী
    এপ্রিল 14, 2011 , 8:54 পূর্বাহ্ন

  8. কবিতার কথা যদি বলি তো খুব ভালো লাগলো
    কিন্তু ছবিটা কম ভালো লাগলো…….
    শুভ নববর্ষ

    sokal.roy@gmail.com'

    সকাল রয়
    এপ্রিল 14, 2011 , 9:42 পূর্বাহ্ন

    • ছবিটায় একটা মেয়ে, যে শুয়ে আছে মেঝেতে।মেঝেতে চক দিয়ে পাখা আঁকা মানে পাখা নেই কিন্তু মিছেমিছি আঁকা। একটা প্রহসন।মিথ্যা পরী।সে যাই হোক আপনার ভালো নাও লাগতে পারে। ক্ষমা চাই।
      কবিতা যে খুব ভালো লেগেছে সেটাই আসল।সেটার জন্য ধন্য বোধ করছি। শুভ নববর্ষ।

      rabeyarobbani@yahoo.com'

      রাবেয়া রব্বানি
      এপ্রিল 14, 2011 , 10:22 পূর্বাহ্ন

      • ছবিটায় একটা মেয়ে, যে শুয়ে আছে মেঝেতে। মেঝেতে চক দিয়ে পাখা আঁকা, মানে পাখা নেই কিন্তু মিছেমিছি আঁকা। একটা প্রহসন। মিথ্যা পরী।

        :-bd
        কবিতার অন্তর্নিহিত তাৎপর্যের সাথে ছবিটার বেশ মিল। অভিভূত।

        রাজন্য রুহানি
        এপ্রিল 14, 2011 , 11:08 পূর্বাহ্ন

      • ক্ষমা-টমা চাইলে খুব কষ্ট লাগে :((
        এখানে সবাই বন্ধুর মতোন (অন্তত আমার কাছে)
        আর বন্ধুর কাছে ক্ষমা চাইতে নেই তাতে দুরত্ব বাড়ে……….প্লিজ আমি দুরপাখি হতে চাইনা।
        ভুল বুঝবেন না ।

  9. আচছা অজগরের শরীর বিবশ কেনো? বিবসনা শরীর হলে মানায়, অজগর তো উদোম গায়ের!

    তবে এই বিবশ ধরে নিলাম এটা প্রচ্ছন্ন মোহ কোন গোপন অচেনার প্রতি, কবি মন অবশ কখনো সেই অবশ আরেকটু মাত্রা ছাড়িয়ে বিবশ
    তাইতো কবি বলছেন
    তোমরা ভাবো,
    এই হাতেই সুখমন্ত্র ছড়ি,
    আধখসা চাঁদ,
    কোন সুদর্শন এই চোখেই দেখে সোনালি কিন্নরলোক।

    একি কবির প্রেমের গোপন মাহাত্ম্য, কিংবা বিরহ, কিংবা ছ্যাকা, প্রেমে অবশ নাতো?
    তারপর কবি আসলে কবির মাঝেই অবশ ..
    যে কারনে এত সুন্দর একটি কবিতা পেলাম আমরা।

  10. বিবশ এখানে ভারী , অচল , অবশ ।অজগরের ভারী শরীরের মত মন কিন্তু বিবসনা নয় এখানে মনের পোষাক ঠিক ই আছে কিন্তু তা হীম জমাট , স্থির ।প্রচন্ড ডিপ্রেশানের একটা বিশেষ সিমটম এটা । কোন সুদর্শন এই চোখেই দেখে সোনালী কিন্নরলোক , এই লাইনটি তোমরা ভাবো র অধীন । মানে একটা ভুল ধারনা ।এটা গোপন প্রণয় নয় ।
    একজন বিষন্ন মানুষ নিজের ভেতর অবশ থাকে । এটা একটা বিষন্ন মানুষের ক্ষোভ , রাজন্য ভাই এর মতে আর্তনাদ ।
    পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ । শুভ নববর্ষ ।

    rabeyarobbani@yahoo.com'

    রাবেয়া রব্বানি
    এপ্রিল 14, 2011 , 3:07 অপরাহ্ন

    • কবির মনের আর্তনাদ থেকেই জন্ম নেয় সুন্দর সুন্দর কবিতা।
      আর্তনাদ উপমাটা চরম আবেগেকে নাড়া দিল।
      আমার মন্তব্য আপ নাকে রাগাল নাকি?

      কবিরা রাগে না!

      কবিরা মাঝে মাঝে অজগরেরর মত বিবশ মনটা নিয়ে চুপটি করে থমকে যায়, ওটাই কবির ধর্ম।

      ভালো তাকুন।

      • মানুষের কন্ঠে আবেগ থাকে । কলমে আবেগ ঠিকঠাক আনতে অনেক কিছু লিখতে হয় । সহজে আবেগ প্রকাশের জন্য ই এই ইমো সিস্টেম আছে । আমার কথায় আপনার মনে হয়েছে আমি রেগেছি ? কই আমি যে আপনার লেখায় কতো কিছু বলি আপনি মনে মনে রাগেন বুঝি ?
        আর সেটাই তো আমার কমেন্টস এ বুঝি সঠিক আবেগ আসে নি ।আপনার মনে হয়েছে আমি রেগেছি ।
        একসাথে শৈলীতে আছি থাকবো অনেকদিন । কোন রাগারাগি নেই ।বলার স্বাধীনতা না থাকলে কিসের ব্লগিং কিসের বন্ধুত্ব ।
        ভালো থাকুন ।

        rabeyarobbani@yahoo.com'

        রাবেয়া রব্বানি
        এপ্রিল 15, 2011 , 8:47 পূর্বাহ্ন

  11. জীবনের জন্য সত্য…….

    বন্ধুরা;
    কেন দেখোনি আমার রোদ হারানো কষ্ট
    আর ভীষণ বিবশ মন!
    তোমাদের ভীড়ে অভিমানি আমি নিষ্ঠুর হতে থাকি
    দিন-দিন আমি পর হতে থাকি
    দিন-দিন আমি পর হয়ে যাই।

    এমন একটি উচ্চারনের জন্যই অপেক্ষায় ছিলাম এতদিন…….
    অসাধারন। তবে_-_
    বন্ধুদের উদ্বেগহীনতায় এখন আমাকে সুখী করে।

    তোমরা কেন বোঝনি বন্ধুরা?
    তোমাদের এই উদ্বেগহীনতায়
    আমি ভালো নেই বহুদিন।

    কেন ? কেন ? কেন ?..!!!

    যারা হৃদয়ের দাম দিতে জানে না
    সেই সব হৃদয়হীনদের জন্য “ভালো নেই” বললে
    নিজের প্রতি নিজের অবিচার করা হবে…..

    বুঝে বললাম নাকি না বুঝে ?? ?? > 8->

  12. কবিতা একজন কবি তার অনুভুতিতে আঁকে কিন্তু এখানে অনেক রঙের শেড হয়ে যায় । একেক জনের চোখে একেকটা বেশি লাগে । যেমন আপনি ক্ষোভটা দেখলেন ।
    খুশি করে ? এটাওতো বদলে যাওয়া ,নরম মনটা শক্ত করে নেয়া ।পর হয়ে যাওয়া , নয় কি ?
    হৃদয়হীনদের জন্য ভালো নেই বললে নিজের প্রতি অবিচার করা হবে ,
    এটা একশো পারছেন্ট ঠিক কথা ।আপনি বুঝেই বলেছেন ।তারপর ও মানুষ কখনো পাওয়া উদ্বেগ কে মিস করে ,হারানো কিছুর জন্য ভেতরে ভেতরে হাহাকার করে ।তারপর আস্তে আস্তে এই পর হয়ে যাওয়া ।
    তবে এটা ঠিক নিজের প্রতি এই অবিচার থেকে দ্রুত বের হতে পারাই উচিত সবার ।
    আপনাকে কমেন্টস এ পাই নি বেশি । তাই সত্য কথায় খুব হয়েছি । শুভ নববর্ষ ।

    rabeyarobbani@yahoo.com'

    রাবেয়া রব্বানি
    এপ্রিল 15, 2011 , 2:10 পূর্বাহ্ন

  13. তোমাদের ভীড়ে অভিমানী আমি নিষ্ঠুর হতে থাকি
    দিন-দিন আমি পর হতে থাকি
    দিন-দিন আমি পর হয়ে যাই। :-bd

    এত সুন্দর কবিতা ~~~~~ মন ছুঁেয় েগল!!!!!!!!!!!!!!! :rose:

    mannan200125@hotmail.com'

    চারুমান্নান
    এপ্রিল 16, 2011 , 9:22 পূর্বাহ্ন

  14. চারু ভাই , অনেক ধন্যবাদ আর কৃতজ্ঞতা ।শুভ নববর্ষ ।

    rabeyarobbani@yahoo.com'

    রাবেয়া রব্বানি
    এপ্রিল 17, 2011 , 5:57 পূর্বাহ্ন

মন্তব্য করার জন্য আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে। Login