অনলাইন আয়ের সত্যতা ও বাস্তবতাঃ আয় করুন; তবে ভুয়া/স্কাম সাইট সম্পর্কে সাবধান!!!

অনলাইন আর্নিং এখন আর অবাস্তব কিছু নয় এবং এর অনেক পথই খোলা আছে। তবে কিছু কিছু ভাই বুঝে হোক না বুঝে হোক আর সঠিক আরনিং সাইট না চিনেই হোক স্কাম বা ভুয়া সাইটের লোভনীয় আয়ের প্রচার চালিয়ে যেমন নিজেও হয়রান এবং বিভ্রান্ত হন, তেমনি আমাদেরও রীতিমত ধোকায় ফেলে দেন। তাই আমি আজ আসল অনলাইন আরনিং সাইটের পরিচয় ও পদ্ধতি সম্পর্কে বলবো যাতে কেউ প্রতারিত না হন। আর আপনি চাইলেই অনলাইন থেকে আর্ন করতে পারবেন, তা ১০০% নিশ্চিত?  প্রকৃত আরনিং সাইটের প্রথম বৈশিষ্ট্যই হল–সাইট কর্তৃপক্ষ  এবং আয়কারীদের সাথে বিভিন্নভাবে যোগাযোগস্থাপন হয়ে থাকে। এমনকি সেই সাইটের ফোরামের মাধ্যমে বা FAQ এর মাধ্যমে তারা তাদের প্রশ্নোত্তর ও সদস্যদের নানা সমস্যার  সমাধান দিয়ে থাকে।  আয়কারী সদস্যরাও তাদের মতামত-পরামর্শসহ লেখালেখির সুযোগ পান; মানে জবাবদিহিতা আছে মানে যাকে বলে ইন্টারেক্টিভ সাইট। ফলে কোন সন্দেহ, বিভ্রান্তি যেমন থাকেনা তেমনি সেই সাইটের সদস্যও দ্রুত বেড়ে যায় এবং লেনদেনের অস্বচ্ছতাও থাকে না। পেমেন্টও নিশ্চিত থাকে। অন্যদিকে স্কাম বা ভূয়া সাইটের প্রথম কাজই হল–কাউকে ধরা না দেয়া বা কারো প্রশ্নের কোনরকম জবাব না দেয়া আর জবাবদিহিতা ও কোন পেমেন্টের তো প্রশ্নই আসেনা। শুধু সাইটের  কিংবা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমেই অবাস্তব অফার দেয়া এবং লোভ দেখানো; বড়কথা ওসব সাইটে কোন ফোরাম থাকেনা বা FAQ পদ্ধতিও নেই।    সঠিক ও প্রকৃত আরনিং সাইটের আয় যৎসামান্যই হয়ে থাকে স্মরন রাখবেন । গুগল এডসেন্স থেকে আয় হয় সত্য, তবে বড় ঝামেলার। আপনার থাকতে হবে একটা ওয়েবসাইট, যা গুগল থেকে বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য অনুমোদিত হতেই হবে। অনুমোদন পাওয়া অনেক কঠিন, আমি ৬ মাস যাবত আমার ওয়েবসাইট সাবমিট করেও এখনও অনুমোদন পাইনি। অনুমোদন পেলে তারা আপনার সাইটে নিয়মিত বিজ্ঞাপন সরবরাহ করবে এবং আপনার পাঠক যদি কোনো বিজ্ঞাপনে ক্লিক করে নির্দিষ্ট সময় ধরে ভিজিট করে, তবেই আপনার একাউন্টে ১,২ বা ৫/১০ সেন্ট ক্ষেত্রবিশেষে ১/২ ডলার পর্যন্ত জমা হবে। তাও আবার আপনি নিজে কিন্তু কোন এডে ক্লিক করতে বা কাউকে উৎসাহিত করতে পারবেন না। শর্ত ভাংলেই একাউন্ট বাতিল বা ব্লক হবে।   তবে যাদের সাইট নেই তারা কি আয় করবেন না? অবশ্যই করবেন এবং এজন্য আছে PTC (paid to click/paid per click) পদ্ধতি। এটা সবচে সহজ পদ্ধতি। কারন অধিকাংশ সাইট প্রতিক্লিকে ১-১০ সেন্ট পর্যন্ত পে করে। তবে আমি আপনাদের কিছু টেকনিক জানাবো যাতে PTC’র মাধ্যমেই ভাল আয় করতে পারেন। প্রথমেই আপনাকে একটি এলা্র্টপে একাউন্ট তৈরি করতে হবে যদি না থাকে।এই লিঙ্কে-( https://www.alertpay.com /?1WuDhvywvlnZoD1Mt%2fBfXw%3d%3d) গিয়ে Personal Pro Catagory তে একটি একাউন্ট খুলে তা ভেরিফাই করুন। ভেরিফাইড না হলে সমস্যা হবে।   এলার্টপে পাতাটি ওপেন হলে একাউন্টের জন্য তিনটি অপশনের মধ্যে পারসোনাল প্রো অপশনটিতে ক্লিক করে টিক চিহ্ণিত দেখালে নেক্সট বাটনে ক্লিক করতে হবে এবং পরের পেজ এলে আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে নিবন্ধন শেষ করবেন । আবার বলি- Personal Pro Catagoryতে একাউন্ট খুলে তা ভেরিফাই করতে হবে। ভেরিফাইড না হলে আয় করলেও কিন্তু ঝামেলা হতে পারে। ভেরিফাইয়ের জন্য আপনার একাউন্টে তিনটি অপশনের মধ্যে A ও C অপশন দুটোই বেস্ট। A-তে আপনার ব্যাঙ্কের তথ্য দিয়ে এবং -C-তে আপনার মোবাইল ফোন নম্বরটি ভেরিফাইড করতে হয়।  এখন আয় করতে চাইলে আপনাকে ভালো PTC সাইট খুজে বের করতে হবে। নেট-এ অনেক PTC সাইট আছে যার অধিকাংশই Scam site যা আগেই বলেছি। এই সাইটে ভালো ও বিশ্বস্ত সাইটের অনেক লিঙ্ক আছে, সেখান থেকে পছন্দমত সাইট বেছে নিয়ে সাইন আপ করে কাজ শুরু করে দেখতে পারেন।

আরো বিশদ জানতে এবং আয় শুরু করতে এখানে ক্লিক করুন—http://saboearn.blogspot.com/

শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।

মন্তব্য করুন