রাজন্য রুহানি

নির্বাসিত স্বপ্নমন্থন

শেষ বিকেলের বিষাদ ভেঙে তবু ছুটে আসে রেলগাড়ি; মনের নগরে তখন ব্যস্ততা চরম— এই বুঝি এলো ! সারাদিন চোখে চোখে ঘুরেফিরে চাতক পাখি যুগল পায়ের বন্দনা…………পথই শুধু শোনে ধুকপুক কলজে………………..পায় না বল যে আর ইঁদুরকেই বা কী দোষ দেওয়া যায় তখন মাঝরাতে যখন বেজে ওঠে তালপাতার বাঁশি বেহায়া………………………………বেশরম মৃদু হাওয়া এসে রহস্য করে হরদম চশমায় […]

 রাজন্য রুহানি

ফাঁদের ফায়দা

কী মন্তর দিয়া টান মারিলা আকাশে এখন মেঘের সাথে ভাসি; সরল বেলারা পন্ডিতি খেলায় তরলতায়, হাওয়ায় পাল্টি খেয়ে মাল্টিকালার মন নিয়ে যাই যতদূর— যেতে থাকি— হে অবাধ্য সূর্যকন্যা, দুরুদুরু আবল্যে বক্ষে আগল দিয়া আজ ফেরারি মনের বাৎস্যায়ন; ক্যান তার থাকিতে পারে কারণ, জানা নাই… মোডা ভাত মোডা কাপড়ের অভাবে কোনদিন ঘুমবউ নাগরের হাত ধরে হয়েছে […]

 রাজন্য রুহানি

যাপনের জীবিত যাতনা

এপাড়ে বাসনাদের বাস শোষিত স্বরলিপি— অনাগত বিড়িপোড়া দিন তাঁতানো বালির বাড়ি— লেজ গুটানো দৌড় পালাই পালাই ওপাড়ে সোনাবন্দের সোনামাখা ত্বকে সোনালি ঝিলিক অধরকান্ত ভোর; ছিপজাল মনে মন্ত্র দিয়া জলসখ্যের সাধ চোখনদীর নাব্যপাড়ে গাছপাপড়ির উথালি বিথালি মনোহরণ ডাক প্রাণপুষ্টি দ্যোতনায় আমি যে সাঁতার জানি নে ও জাওলা… ও হারান মাঝি… ওপাড়ের পরশ পাথরিত রং যখন মুমূর্ষু […]