ছড়া

 চারুমান্নান

–ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টি

–ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টি

লবণ জলের রুপালী ইলিশ মিঠা জলের স্বাদে ঝাঁকে ঝাঁকে মা ইলিশ আসে ডিম ছাড়ার লোভে। রুপালী ইলিশ পদ্মার ঐ স্বচ্ছ জলে আসে উজান ঠেলে শ্রাবণের ইলশেগুঁড়ির বৃষ্টিতে ইলিশ ধরে জেলে। পদ্মার ঢেউয়ে জেলের নাও উতাল পাতাল নাচে শ্রাবণ বাদলে জেলে-মাঝি মুক্তার দাঁতে হাসে। ভুতুসোনা জল রংএ আঁকে ইলশেগুঁড়ি বৃস্টির জল আরও আঁকে পদ্মা পাড়ের ছোট্ট […]

 শাহ আলম বাদশা

সনেটের মতোই নির্দিষ্ট মাত্রা ও পর্বভিত্তিক ৬ পঙক্তির পদ্য “শামেরিক”

ছড়ার একমাত্র ছন্দ স্বরবৃত্তচালের নতুন এক পদ্যরীতি হচ্ছে ‘শামেরিক।’ ৬ পঙক্তির শামেরিকের চরিত্রগত কাঠামো হয় স্রেফ ছড়ারই মতন। শামেরিক মূলত ব্যঙ্গাত্মক, রসাত্মক, ঘৃণাত্মক, প্রতিবাদী ও অর্থবোধক ছড়া যা ক+ক, খ+খ ও ক+ক চালের। এর ১ম দু’পঙক্তি ও শেষ দু’পঙক্তির মাত্রাসংখ্যা হয় মোট ১৪ বা ১৫টি করে। বাংলাসাহিত্যে প্রচলিত একমাত্র অক্ষরবৃত্তে রচিত ১৪ মাত্রা ও ১৪ […]

 মাহাবুবুল হাসান নীরু নীরু

ছড়া: “বলবেন কি মন্ত্রী মহাশয়” – মাহাবুবুল হাসান নীরু

অর্থমন্ত্রী এ কী কথা কয়, সাভারের দুর্ঘটনা নাকি ‘ভয়াবহ‘ নয়!! এর চাইতে ‘ভয়াবহ‘ দুর্ঘটনা আর কী হয়, বলবেন কি বিজ্ঞ-বোদ্ধা মন্ত্রী মহাশয়?   ভবনে যদি থাকতো আপনার স্বজন-প্রিয়জন তবেই বুঝি বুঝতেন এ দুর্ঘটনার ‘ওজন‘ বুঝতেন, ‘ভয়াবহ দুর্ঘটনা‘ কারে কয়, প্রিয়জনের বিচ্ছেদ এক হৃদয়ে কতোটা সয়!   মন্ত্রীরাই কি শুধু মানুষ, জনগণ মানুষ নয়? বলবেন কি অভিজ্ঞ (!) মন্ত্রী মহাশয়?   কী যে […]

 সেজান মাহমুদ

কাদের সিদ্দিকী কে হেফাজতের মিছিলে দেখার পর ছড়াটি লেখা – সেজান মাহমুদ

আপনি ছিলেন বীরের প্রতীক আপনি ছিলেন বাঘ ব্যাঘ্র থেকে বিড়াল হলেন তাই তো সবার রাগ। আপনি ছিলেন প্রিয় সবার স্বাধীনতার পক্ষে হঠাৎ করেই কোলাকুলি রাজাকারের বক্ষে। নামের শেষে সিদ্দিকী, বঙ্গবীর কাদের টাকায় নাকি সব ধুয়ে যায় আপনি এখন কাদের? যে রাজাকার সে রাজাকার থাকেই চিরকাল মুক্তিযোদ্ধা থাকতে যে হয় মৃত্যু-শপথ কাল। হেফাজতের ঐ মিছিলে কার […]

 চারুমান্নান

ছড়া: ফাগুন ফিরে আসে

সকাল গরিয়ে দুপুর গেল বিকেল আয়েশ করে, সাঁঝ বেলায় বসন্ত মায়া স্মৃতি পাশ ফিরে। পলাশ তলায় মলিন দল দক্ষিণা হাওয়া বয়, ঝোপ ঝাড়ে কোকিল ডাকে ভ্রমর গান গায়। মৌমাছি গুনগুনিয়ে মৌচাকে মধু সঞ্চয়ে মাতে, আমের বোলের বাসনা মেখে ফাগুন ফিরে আসে। ১৪১৯@১২ ফাল্গুন, বসন্তকাল।

 চারুমান্নান

ফড়িং ডাকে সবুজ ঘাসে

ফড়িং ডাকে সবুজ ঘাসে বলছে সবাই ভুতু সোনা সামনে তোমার পরীক্ষা, কার্টুন দেখা বন্ধ কর পড়া লেখায় মন দাও।। ভাল করার ভোজ বাজিতেই নিদ্রা হারা ভুতু সোনা, পড়তে গেলে টেবিল জুড়ে স্বপ্নেরা সব পাশে বসে।। ফড়িং ডাকে সবুজ ঘাসে রংধনু ঐ পুব আকাশে, দিচ্ছে উঁকি কাঠবিড়ালী শুনলে কথা জানলায় এসে।। জানলা দিয়ে ঠিকরে পরে চাঁদের […]

 মাহাবুবুল হাসান নীরু নীরু

ফেসবুকে হুমায়ূন – মাহাবুবুল হাসান নীরু

ফেসবুকে হুমায়ূন – মাহাবুবুল হাসান নীরু

ফেসবুক জুড়ে আজ শুধু দেখি হুমায়ূন কতো ব্যাথা, কতো কথা বলছে কতো জন. বর্ণিল হুমায়ূন; কারো চোখে সাদা-কালো কতো ছিলো গুণ তাঁর; কতোটা ছিলো আলো, কালো ছিলো কতোটা অন্তর মাঝে তাঁর? প্রশ্নটা উঠে আসে ফেসবুকে বার বার। সাহিত্যিক হুমায়ূন ছিলো কতো বলীয়ান উঠে আসে সে হিসেব; শত মুখে জয়গান, কেউ কেউ তুলে ধরে হুমায়ুন অভিধান […]

 চারুমান্নান

ভুতু সোনার বৃষ্টি দুপুর

ভুতু সোনার বৃষ্টি দুপুর ভুতু সোনার বৃষ্টি দুপুর চড়ুই সঙ্গ, কিচির মিচির কাক ভেজা কা,,,,কা।। পেখম মেলা বন ময়ূর রংধনুর রঙ, তাধিন তা নাচে ময়ুরী ডাকে কে,,,,কা।। মেঘের বীণায় বৃষ্টির গান ঝর ঝর রঙ্গ, ঢলের মাতম বর্ষায় ভাসায় শহর গঞ্জ।। ১৪১৯@১৪ আষাঢ়,বর্ষাকাল

 চারুমান্নান

ভরদুপুরে গরম রোদে, বৃষ্টি এল ঝেঁপে

ভরদুপুরে গরম রোদে, বৃষ্টি এল ঝেঁপে ভরদুপুরে গরম রোদে, বৃষ্টি এল ঝেঁপে মেঘ উড়ে যায় ঐ সুদূরে, র্সূয উঠে হেসে। মায়ের সাথে হাসের ছানা, ডুব দেয় দল বেঁধে পুকুর জলে বৃষ্টির ফোটা, খেলছে গায়ে মেখে। ঘোলা জলে পান কৌড়ি, মাছের নেশায় ডুবে মাছ রাঙা ঝাঁপ দিয়ে, পুঁটি মাছ ধরে। ডান পিঠে এক দল, গরম জলে […]

 চারুমান্নান

মধুমাসে মধুফল

মধুমাসে মধুফল মেঘ উড়ে যায় ঐ দিগন্তে, রৌদ্র উঠে তেজে। মধুমাসে মধুফল এমন জ্যৈষ্ঠ মাসে। মধুমাসে মধুফল, পাকে গাছে গাছে! কামরাঙা করমচা, সবুজ পাতার ফাঁকে! গাছের গায়ে লটকন ঝোপা, লিচু ডালে ঝুলে। কাঁঠাল গাছে কাঁঠাল ঝুলে, সবুজ টিঁয়া উড়ে। ১৪১৯@৮ জ্যৈষ্ঠ,গ্রীষ্মকাল

 মুহাম্মদ সাঈদ আরমান

ফাগুনের গান

ফুল এনেছে ফাল্গুনি খুকি মালা যায় বুনি, ভোমরে গায় গুনগুনি শুনে নাচে টুনটুনি। ফাল্গুনি ফাল্গুনি তোর জন্য দিন গুনি। মৌমাছি আর বুলবুলি চষে বেড়ায় ফুলগুলি, আল্লাহু নাম সুর তুলি কোকিল কণ্ঠে গান শুনি। ফুল এনেছে ফাল্গুনি সবার মুখে গুনগুনি। শিল্পীরা সব মন ভুলি আঁকছে দিয়ে রং-তুলি, রঙ বাহারী ফুল গুলি প্রজাপতি যায় গুনি। ফুল এনেছে […]

 মুহাম্মদ সাঈদ আরমান

ভোরের ডাক

পায়রা ডাকে বাকবাকুম যা টুটে যা খোকার ঘুম ঘুমের পরী চলে যা গলার মালা রেখে যা। বাকবাকুম বাকবাকুম যা চলে যা খোকার ঘুম। মোরগ ডাকে কুক্কুরু কু জাগো জগো ঘুমখুকু অজু কর নামাজ পড় খুশি হবেন আল্লাহু । কুক্কুরু কু জাগো খুকু দয়াল প্রভু আল্লাহু।।