২০১২ সালে সাহিত্যে নোবেল পেলেন চাইনিজ লেখক মো ইয়ান

বিষয়: : সাহিত্য সংবাদ |

২০১২ সালে সাহিত্যে নোবেল পেলেন চাইনিজ লেখক মো ইয়ান

সুইডিশ একাডেমি সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন চাইনিজ গল্পকার ও ঔপন্যাসিক মো ইয়ান। চাইনিজ এই লেখক ১৯৫৫ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি চীনের শানডং রাজ্যে গাওমি শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তার চাইনিজ লেখকদের মধ্যে জনপ্রিয়তম একজন। তার লেখালেখিতে সামাজিক বর্ণনা প্রাধান্য পায়। লু শান এর রাজনৈতিক সমালোচনা দিয়ে তিনি দারুণভাবে প্রভাবিত। পাশাপাশি তিনি গ্যাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেজের জাদুবাস্তবতা দ্বারা প্রভাবিত। মো ইয়ান তার সাহিত্যিক নাম, তার আসল নাম গুয়ান মোয়ে। প্রথম উপন্যাস লেখার সময় তিনি মো ইয়ান নামটি নেন যার অর্থ ‘কথা বলো না’।

১৯৮১ সালে লেখালেখি শুরু করেন মু ইয়ান। সেবছরই তার প্রথম উপন্যাস ‘ফলিং রেইন অন অ্যা স্প্রিং নাইট’ প্রকাশিত হয়। তার বহুল আলোচিত বই ‘রেড সরগাম’ চাইনিজ ভাষায় প্রকাশিত হয় ১৯৮৭ সালে। এই বইটি কাহিনী নিয়ে পরবর্তীতে চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হয়। মো ইয়ানের সর্বশেষ উপন্যাস ‘লাইফ অ্যান্ড ডেথ আর ওয়ারিং মি আউড প্রকাশিত হয় ২০০৮ সালে।

নোবেল পুরস্কার পাওয়ার আগে তিনি ২০০৬ সালে ফুকুওকা এশিয়ান কালচার প্রাইজ, ২০০৯ সালে নিউম্যান প্রাইজ ফর চাইনিজ লিটারেচার এবং ২০১১ সালে মাও দুন লিটারেচার প্রাইজ জিতেন। মো ইয়ান ২০০৭ সালে ম্যান এশিয়ান লিটারারি প্রাইজের মনোনয়নপ্রাপ্তদের তালিকায় ছিলেন।

সাহিত্যে নোবেল পাওয়ার সম্ভাব্যদের তালিকায় ছিলেন অনেকেই। এর মধ্যে ছিলেন সিরিয়ার কবি এদোনিস, জাপানিজ সাহিত্যিক হারুকি মুরাকামি এবং আমেরিকান কবি ও গায়ক বব ডিলান। এর মধ্যে জিতে নিলেন নোবেল সাহিত্য পুরস্কার।

শৈলীর বার্তাবাহক। আড্ডা হোক শুদ্ধতায়। শিল্প আর সাহিত্যে
শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।

মন্তব্য করার জন্য আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে। Login