আহমেদ মাহির

মাঝরাত্তিরের অনুকাব্য :: ৭

Decrease Font Size Increase Font Size Text Size Print This Page

১।।

বিষাদের সুর ওই পুঞ্জিত মেঘমালায়
মিলে গিয়ে শুভ্র-ধুসর বিষাদ-বর্ণ ছড়ায় ;
কবেকার জমে থাকা মন-কোনে ব্যথা ,
গোধুলি-বিষাদে স্মৃতি যেন আজ রূপকথা !

আঁধার নামে – বড় নীরবে ; অস্ত যায় রবি
সন্ধ্যাতারার স্পর্শে হারায় আঁধারের কবি !

২।।

বিদ্যুতের তারে মারা পড়ে শালিক আর কাক ;
সৌখিনের সখ মেটাতে বিষ্ময়কাতর দৃষ্টি নিয়ে
আপন প্রাণের উৎসর্গ পদাবলি রচে অতিথি পাখিরা ;
এভাবেই চপল মৃগ হয়ে যায় স্তব্ধ ; এরা তুচ্ছ –
ইতর প্রাণি বিশেষ ! কী যায় আসে ওদের চলে যাওয়ায় ?
ওদের দলে যে রয়েছে আমারও নাম !
তবে আমার জন্যে কেন অপেক্ষা করে রয়
লাশকাটা ঘরের শীতল উষ্ণতা আর একরাশ পিছুটান ?

৩।।

কোনো একদিন শহরের রাজপথে নেমে আসে ঘুম ,
শুনশান নিয়ন আলো ছুঁয়ে বয়ে যায় উষ্ণ হাওয়া ;
শুধু শহর চৌরঙ্গীর বখাটে কুকুরেরা জেগে থাকে
আর পলে পলে জানায় , ‘আমি জেগে আছি ।’
নির্লিপ্ত নয়নে কাকেরাও জেগে থাকে প্রতিনিয়ত
অস্তিত্ত্বের সঙ্কটে ; ওরা ঘুমোয় না – স্বপ্ন এসে ছোঁবে ব’লে !

৪।।

ওরা তোমার সিঁথিতে সিঁদুর বিছিয়ে
তোমায় বিধবা করে দিয়ে গেলো !
আর আমার প্রাণহীন চোখ অসহায়ের মতন
গুমড়ে মরেছে পুনঃপুনঃ ।
তোমার আকুতি স্তব্ধতার বুকে শেল বিধিয়েছে ;
শকুনের মতন খুবলে খুবলে
আমার প্রাণহীন প্রাণ চিড়ে বের করে এনেছে
আমার ব্যার্থতার পংক্তিমালা ;
প্রানহীন আমি সে আকুতিটুকুও করতে পারিনি !

৫।।

মধ্যরাতের ট্রেনটি স্টেশান ছেড়ে গেল’ ,
ট্রেনের হুইসেল রাতের শুনশানকে চিড়ে
একটা করুন – হৃদয়ে ব্যথা-জাগানিয়া
আর্তনাদ করে ওঠে শেষ জেগে থাকা
পাখিটির মতই ; বড় কষ্ট জাগে বুকে !
আমিও তো এ নগরীর বুকে শেষ জেগে থাকা মানুষ ;
এক বুক হাহাকার চেপে ঘুম ঘুম অভিনয়ে মাতি তবু
অশ্রুসজল চোখে এতটুকু শব্দও করি না !

৬।।

মন্দ নয়, এই মৃত হয়ে বেঁচে থাকা ।
অনুভুতিমালা বড্ড জ্বালাত’, কি বল’ ?
আবেগের কথা তো বাহুল্য ; এরচে’ ভালো
এই মৃত হয়ে বেঁচে থাকা – অনুভুতির অগচরে !

৭।।

কোনো রাতে দু’চোখে নেমে আসে অনন্ত ঘুম ,
কোনো রাতে খুনসুটি ওই সন্ধ্যা তারার ;
কোনো রাতে দু’চোখে নামে স্মৃতির মেলা
হাজার বছরের জ্বলজ্বলে তোমাতে-আমাতে ভালোবাসার !

৮।।

অবশেষে একদিন যখন সূর্যের সাথে আমারও ঘুম ভাঙে গেল ,
আমি দেখলাম – অনুভব করলাম সর্ব অস্তিত্ত্বে –
আমার আত্মাই শুধু জেগেছে আজ ; দেহখানি ঘুমিয়ে পড়েছে চিরতরে ।
কী আনন্দ ! কী ভীষন স্বাদ এই মুক্তির ! আমার চির আকাঙ্খিত সেই মুক্তি !

৯।।

এভাবে কেটে যায় সন্ধ্যেরা ; ধীর পায়ে নেমে আসে আধার ,
হৃদয়ে গুমরে কাঁদা কান্নারা খুঁজে হারায় নীড়
আর ব্যাথারা যেন কাশফুল – কষ্টমাখা বাতাসে কুড়োয় আহার !

১০।।

জানি, একদিন কিছুই থাকবে না,
না আমি, না তুমি ; না আমাদের দুঃসময় ।
সন্ধ্যেবেলায় ক্লান্ত হয়ে ঘরে ফেরার মতই
আমরা , আমাদের আনুসঙ্গিকতা ফিরে যাবে
ঠিকানাহীন কোনো অজানায় ।

১১।।

তবে যাক না মুছে ওই রাতের আলো
তোমাদের সভ্যতা তোমাদেরই থাক ;
রাতকে খুঁজে নেই আমি আঁধারের আলোতে
যখন সব সুখেরা নির্লিপ্ত নয়নে থাকে নির্বাক !

১২।।

কবেকার কোন কথামালা আর
চোখের কোনের অন্তর্বাষ্প-জ্বালা
ছুঁয়ে যায় বৈশেখে-তপ্ত হাওয়ার মত আজও ;
সেই উদাসী হৃদয় আর চঞ্চল নয়নের
অবিরত ছন্দ আর তার দোলাচল
এ হৃদয়ে আজও এঁকে যায় কাব্য ;
শুধু জানি না আজ কোথায় আছ ;
জানি না আজ কেমন আছ , স্বপ্নিতা ?

১৩।।

ভিখিরির মতন দ্বারে দ্বারে ঘুরি ,
ইনিয়ে বিনিয়ে সুর করে চাই আশ্রয় ;
অনিকেত আজ ওরা নাকি সবে –
নির্লিপ্ত চোখ ; আমি নিরুপায় !

১৪।।

আঁধারের অতিথিরা যখন ছায়ার পদচিহ্ন খুঁজে ফেরে ,
সন্ধ্যাতারাটা তখন বিলায় আলো অথৈ তেপান্তরে ;
সাঁঝবেলাতেই ধ্রুবতারাটা যখন শুকতারাকে খোঁজে ,
কনে-দেখা-আলো তখন অলস আমোদে অবেলায় চোখ বোজে !

১৫।।

সব বর্ণ কালোতে মিলালে বড় ভয় হয় ,
চৌ-মাথার হট্টগোলেও বড় নির্জন এ হৃদয় !

১৬।।

এমনটা ভালো লাগে ; শামুকের মতন
নিথর হয়ে চুপসে পড়ে থাকা অনন্তকাল ;
ভালো লাগে সন্ধ্যা শেষের রাতের আমন্ত্রন –
ধুকপুক হৃদয়ের প্রহর পেরিয়ে আসা শুভ্র সকাল !

© আহমেদ মাহির
১৯/১১/১০

শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।


11 Responses to মাঝরাত্তিরের অনুকাব্য :: ৭

  1. mahirmahir3@gmail.com'
    আহমেদ মাহির নভেম্বর 18, 2010 at 9:12 অপরাহ্ন

    ধন্যবাদ , রনি ভাই ।

  2. imrul.kaes@ovi.com'
    শৈবাল নভেম্বর 19, 2010 at 3:22 পূর্বাহ্ন

    মাহির ভাই ,সবকটাই খুব ভাল হয়েছে ।তবে ১ , ৩ , ১৫ , ১৬ তে কথা হবে না , একেবারে নির্বাক্‌ করে দিলেন ।

    • mahirmahir3@gmail.com'
      আহমেদ মাহির নভেম্বর 19, 2010 at 8:11 পূর্বাহ্ন

      কায়েস ভাই, অনেক অনেক ধন্যবাদ । সবই তো আপনার আগের পড়া । ১৫ নং টা কিন্তু পুরষ্কারপ্রাপ্ত । :-)

  3. sohelshahed2008@gmail.com'
    এস. এম. তাহমিদুর রহমান নভেম্বর 19, 2010 at 4:49 পূর্বাহ্ন

    খুব ভাল হয়েছে।

  4. mahirmahir3@gmail.com'
    আহমেদ মাহির নভেম্বর 19, 2010 at 8:14 পূর্বাহ্ন

    ^:)^

  5. mahirmahir3@gmail.com'
    আহমেদ মাহির নভেম্বর 21, 2010 at 3:06 অপরাহ্ন

    ধন্যবাদ , ভাই ।

  6. juliansiddiqi@gmail.com'
    জুলিয়ান সিদ্দিকী নভেম্বর 21, 2010 at 8:46 অপরাহ্ন

    ১৫নাম্বারেরটা মনে হলো অসাধারণ! সামান্যতেই কী বিশাল ব্যাপ্তী! :rose:

    • mahirmahir3@gmail.com'
      আহমেদ মাহির নভেম্বর 22, 2010 at 8:22 পূর্বাহ্ন

      সিদ্দিকী ভাই , ১৫ নং টা পুরষ্কারপ্রাপ্ত । :-)

      মন্তব্য ও ফুল উভয়ের জন্যেই ধন্যবাদ ।

You must be logged in to post a comment Login