বিবাহঘটিত প্রশ্ন-সমাচার

বিষয়: : কৌতুক,রম্যশৈলী |

আমার মাথায় কুলায় না, বিয়ে করে খাল কেটে কুমির আনার দরকার টা কি? বিয়ে করে কে কবে কি হতে পেরেছে? পৃথিবীতে যতো বড়ো বড়ো প্রেমিক- প্রেমিকা আছে লাইলী-মজনু, শিরি-ফরহাদ, রোমিও-জুলিয়েট কিংবা আমাদের দেবদাস এরা কেউ তো কোনো দিন বিয়ে করে নি। একবার ভেবে দেখেন তো এরা যদি বিয়ে করতো তাহলে কি আমরা মনে রাখতাম ? এরা কি জগৎ বিখ্যাত হতে পারতো? কিন্তু দেখেন কে শুনে কার কথা !?!! ভালা কতার আজকাল কোনু দাম নাই।!!!! আফসোস!!!

মেজাজ গরম। চূড়ান্ত ত্যক্ততার মধ্যি দিন যাপিত করতাছি। একখান অবধারিত প্রশ্ন শুনতে শুনতে মাথা ধরা। কারো সাথে দেখা হইল অথবা ফোনে কথা হইল (ইরেসপেক্টিভ অব আন্ডা বাইচ্চা অথবা আবাল বৃদ্ধবনিতা), ভালা বুড়া জিগাইবার আগেই সবার প্রথম প্রশ্ন, “কি রে, বিয়ে করেছিস??”, “কি রে, বিয়ে করেছিস??” প্রশ্ন শুনতে শুনতে ঠোটের আগায় আমিও কথা রেডি রাখি। যারে যেরুম বুজানো যায় বুজায়া আইতাছি। কদিন আগে আমার থেকে ৮ বছরের ছোট, দুধের বাইচ্চা, ফোন ধরে প্রথমেই টিটকারি মেরে কয়, ভাইজান, ভাবী কেমন আছেন??… শালার…..(মাথার চুল ছিড়ার ইমো)….!!

ভাই, যারা এখনও বিয়ে করেন নি তারা ঘাবরাইয়েন না। আসেন আমরা সবাই একজোট হই, সবাই মিলে এক সাথে আওয়াজ তুলি, আমিতো বিয়ে করবোই না আমার ছেলেকেও বিয়ে করাবো না । আর, মরার আগে আমাদের নাতীকেও বলে যাবো, ভাইরে! তুইও বিয়ে করিস না।

এইবার কয়েকখান কৌতুক কান খাড়া করে শুনেন:

১.
জামান সাহেব তার নার্সারিতে পড়ুয়া ছেলেকে নিয়ে গেছেন চিড়িয়াখানায় । বিভিন্ন রকমের পশু-পাখি দেখে ছেলের তো কৌতুহলের বাঁধ ভেংগে গেছে । যেইটা দেখে হেইটা নিয়েই প্রশ্ন করে । বাবা এটা কি?

= এটা ঘোড়া ।
= বাবা ওটা কি ?
= ওটা গাধা ।
= বাবা গাধার পাশে ওটা কি ?
= গাধার পাশেরটা হচ্ছে গাধী ।

ছেলে তো অবাক! কোনটা কি এটা চিনতে না পারলেও গাধা গাধীর ব্যপারটা ও বুঝতে পারে না। তাই অবাক হয়েই বাবাকে প্রশ্ন করে, আচ্ছা বাবা, গাধারা কি বিয়ে করে?

জামান সাহেব এবার নিজেই চিন্তায় পড়ে গেলেন। মাথা চুলকাতে লাগলেন। তারপর চাঁপা একটা দীর্ঘ-শ্বাস ফেলে গাধার দিকে তাকিয়ে বললেন, হ্যাঁ রে বাবা, গাধারাই বিয়ে করে !!!

২.
বিবাহবার্ষিকী নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা হচ্ছে—
স্ত্রী: তোমার কি মনে আছে, কাল আমাদের ১৩তম বিবাহবার্ষিকী?
স্বামী: হুমম, তো কী হয়েছে?
স্ত্রী: এই দিনটি কী করে পালন করব বলো তো?
স্বামী: তুমি কী করবে জানি না, তবে আমি সকালে ঘুম থেকে উঠে দুই মিনিট নীরবতা পালন করব।

৩.
স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার পর স্বামী বাসা থেকে চলে গেছেন। তাঁদের মধ্যে মুঠোফোনে কথা হচ্ছে—
স্বামী: আজ রাতের খাবার কী?
স্ত্রী: বিষ আছে বিষ!
স্বামী: ঠিক আছে, তুমি খেয়ে শুয়ে পড়ো। আমার ফিরতে আরও দেরি হবে।

৪.
স্বামী: ওগো শুনছ, সর্বনাশ হয়ে গেল।
স্ত্রী: কী হয়েছে?
স্বামী: আজ মাইনে নিয়ে অফিস থেকে বাড়ি আসার পথে দুই ছোকরা পিস্তল দেখিয়ে বলল, হয় টাকা দাও না হলে জান দাও।
স্ত্রী: আর তুমিও বোকার মতো টাকাটাই দিয়ে এলে!

৫.
: বাড়ি ফিরেই এক লোক দেখতে পেল তার স্ত্রীর হাতে, মাথায় ব্যান্ডেজ। সে ছুটে তার কাছে গিয়ে কী হয়েছে জানতে চাইল। ‘গাড়ি এক্সিডেন্ট করেছি …সকালে ঘরের কিছু কেনাকাটা করতে বেরুচ্ছিলাম …’
স্ত্রীকে থামিয়ে দিয়ে স্বামী উত্তেজিত হয়ে বলল- ‘এত বিস্তারিত বলার প্রয়েজন নেই, এখন কী অবস্থা বল।’
স্বামীকে তার ব্যাপারে এত চিন্তিত হতে দেখে খুশি হয়ে স্ত্রী বলল- ‘আরে এত দুশ্চিন্তার কিছু নেই, মাথায় দুটো সেলাই পড়েছে আর কবজি সামান্য একটু মচকে গেছে। অবশ্য ডাক্তার বলেছে …’।
এবার স্বামী আগের চেয়েও জোরে চিৎকার করে উঠল, ‘আরে তোমার কথা কে জিজ্ঞেস করল? গাড়ির কী অবস্থা সেটা বল ।’

৬.
মৃত্যুশয্যায় শায়িত স্বামী তার স্ত্রীকে বলছেন—
স্বামী: আমি তো আর এক মাস পর মারা যাব, তাই আমি চাই, আমার মৃত্যুর পর তুমি সাজ্জাদ সাহেবকে বিয়ে কর।
স্ত্রী: সাজ্জাদ সাহেব! বলো কি, সে তো তোমার শত্রু। আর তাকে কিনা বিয়ে করতে বলছ তুমি!
স্বামী: আমি জানি সে আমার শত্রু। সাজ্জাদকে শায়েস্তা করার এটাই তো মোক্ষম সুযোগ, বুঝলে?

৭.
উকিলঃ সেকি ম্যাডাম ? আপনার স্বামী তো পাচ বছর আগে মারা গেছেন । তাহলে চার বছরের আর একটি দুবছরের বাচ্চা এলো কোথা থেকে ?
ভদ্রমহিলা রাগের স্বরেঃ তা আমি তো বেচে আছি না কি?





পাদটিকা:

আঙ্গুর

ফল

আজকাল

বেশি

বেশি

টক!

8-)
বি

সমান সান্নিধ্যে আমার বিশ্বাস নেই। কিংবা কাছাকাছি জল ছুঁবার একান্ত ইচ্ছেতে ও। বরং দূরে থাকা তারার হাড় স্পর্শ করে বলে দিতে পারি , এরাও মরে গেছে অনেক আগে। পৃথিবীর জন্মের দুহাজার সাল আগে।একদিন অথবা একরাতে গল্প করতে করতে বলে গেছে সেইসব অগনিত মৃত্যুকাহিনী। যা তুমি জানো, কিয়দংশ আমিও জানি। আমার ফেইসবুক আইডি: লিংক
শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।

7 টি মন্তব্য : বিবাহঘটিত প্রশ্ন-সমাচার

  1. :-D :laugh: :laugh:

    snmhoque@yahoo.com'

    আজিজুল
    সেপ্টেম্বর 1, 2010 , 6:17 অপরাহ্ন

  2. তো আরকি ! যারা প্রতিনিয়ত প্রশ্ন করে বিরক্ত করে তাদেরকেই বলেন মিষ্টি আঙ্গুরের ব্যবস্থা করতে … আর কিছু বলবো না মায়ের নিষেধ বড়দের বিষয়ে নাক গলানো যাবে না । তবে আপনার জন্য থাকল শুভ কামনা।

    imrul.kaes@ovi.com'

    শৈবাল
    সেপ্টেম্বর 1, 2010 , 6:37 অপরাহ্ন

  3. ভালো লাগলো। :yes: :yes: :yes:

    তবে বিবাহ ব্যাপারে কেউ কেউ সিরিয়াস না হইলে আমরা বাবা-মা পেতাম কোথায়?

    juliansiddiqi@gmail.com'

    জুলিয়ান সিদ্দিকী
    সেপ্টেম্বর 1, 2010 , 7:48 অপরাহ্ন

  4. আসেন আমরা সবাই একজোট হই, সবাই মিলে এক সাথে আওয়াজ তুলি, আমিতো বিয়ে করবোই না আমার ছেলেকেও বিয়ে করাবো না । আর, মরার আগে আমাদের নাতীকেও বলে যাবো, ভাইরে! তুইও বিয়ে করিস না। ?:-) ?:-) :-D :laugh:

    mahirmahir3@gmail.com'

    আহমেদ মাহির
    সেপ্টেম্বর 1, 2010 , 8:57 অপরাহ্ন

মন্তব্য করার জন্য আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে। Login