চারুমান্নান

আমাদের ঢাকা

Decrease Font Size Increase Font Size Text Size Print This Page

আমাদের ঢাকা

নগর সভ্যতার যান্ত্রিক ভোগ-সম্ভোগের
ক্রমোন্নতির শীর্ষে এখন
আমাদের এই ঢাকা;
ক্রমশ এক অন্তঃসার শূন্য ছন্দহীন জীবনের স্পন্দন
কংক্রীট মালটিষ্টোরীড এ্যাপার্টমেন্টে হারিয়ে যাচ্ছে।
অপদার্থতার গুনকীর্ত্তন,
এবং অর্থের অন্বেষনে ‍দৌড়-ঝাঁপ
সামাজিক স্টেটাস-স্বর্বস্য ককটেল পার্টি,
ইন্টার নেটে সোসাল মডেলদের সেক্স স্ক্যান্ডাল;
এখন প্রায় ঘরে ঘরে প্রেম-অপ্রেম দ্বন্দ্বে ‍
বেঁচেবর্তে এই সময়ের মধ্যবিত্ত।
বাস-টেম্পো,অটো-মিনি,স্পেশাল সি এন জি
ঠ্যেলা-রিকসার গুঁতোগুঁতিতে
ট্রাফিক জ্যাম।

গেট-টুগেদার’এ একটা কিনলে আরেকটা ফ্রি
শুধু উদ্দেশ্য উপােভাগ এবং প্রলোভন এর হাত ছানিতে
লুটে পুটে খাওয়ার দলে এই ঢাকায় সবাই ওঁৎ পেতে থাকে।
শহরের রাজ প‍থ থেকে অলিগলি পর্যন্ত
গ্রেট টিজার,ছিচকে চোর থেকে গুন্ডাপান্ডা
ডাষ্টবিনের মাছির মত ভন ভন করে;
কারন তারা মুনাফাখোর সমাজের সৃষ্টি
তেমনি আবার মুনাফাখোর শোষকদের পোস্যকুকুর,
এই ঢাকা শহর যে সত্যি সুত্যি অসুস্থ
আবার প্রাণ শক্তিতে জীবন্তও;
মেকি ভন্ডদের আস্তানা বাড়ছে।

এই ঢাকা শহর,
সমাজ জীবনে ক্রমবর্ধিঞ্চু সুখোচ্ছ্বদের তাড়নায়
আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা;
ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত শুধু ছুটাছুটি, ফুরসৎ নেই।
ভোগবাদের উম্মত্ততার মাপকাঠিতে হন্নে কুকুরের
মত শুধু টাকার নেশায় ব্যস্থ;
মনুষত্ব বিবেগ এখন কেতাবীবুলি,
অন্যদিকে শত শত মজুরের অক্লান্ত পরিশ্রমের বিনিময়
যারা প্রতিদিন এই শহরকে বদলে দিচ্ছে,
তাদের বসতি বস্তির ঝুপতিরে;
স্বাধীনতা উত্তর এই নগরে প্রতিদিনই
কোথাও না কোথাও গণতন্ত্রের চর্চা,
বিরেধী দলের মিছিল,দাঙ্গা পুলিশের দম্ভ
আলোচনা চক্র,সমালোচনা,মিথ্যাচার,অসাধুতা
ধনতান্ত্রিক সমাজে; গণতন্ত্রের নামে নিমর্ম ‍‍শোষণের
অযোগ্য হরতাল,
এসব করেও কেউ কেউ-‍’দেবতুল্য’ নেতা বুনে যায়।

ঢাকায় এখন মজা,
দোকানে,হোটেলে, মাঠে সেজে কি বিভৎ মজা!
তুমি শুধু দ্বাঁড়ায়ে দ্যাখো,আর হতবাক বিশ্ময়ে
চেয়ে চেয়ে চোখ জুড়াও
মানুষ কেমন স্রোতের মত ভেসে আসে
গড্ডালিকা প্রবাহ সত্য! ঐটাই খাঁটি,
ভোগই মুক্তির পথ।

১৪১৮@১ শ্রাবণ,বর্ষাকাল

শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।


One Response to আমাদের ঢাকা

  1. রাজন্য রুহানি সেপ্টেম্বর 17, 2011 at 10:12 পূর্বাহ্ন

    ভোগই মুক্তির পথ।

    …এ কেমন কথা কবি! ইপ্সিত ভোগ তো আত্মতৃপ্তির ঢেঁকুর, মুক্তির পথ তো মন-সাধনায়।

You must be logged in to post a comment Login