Home » Posts tagged with » কাজী নজরুল ইসলাম

উমার কবি, উমার সব্যসাচী

অসুস্থ নজরুলকে বিলেত থেকে কোলকাতায় ফিরিয়ে আনার পর কাগজে নার্স চেয়ে বিজ্ঞাপন দেয়া হয়। বন্ধুর আগ্রহেই কবির সেবায় নিযুক্ত হন উমা মুখার্জি। পরবর্তী সময়ে কবির পুত্রবধূ। মুখার্জি থেকে কাজী। একসময় নিজের পরিবার আর কাছের মানুষদের ছেড়ে কবির সঙ্গে ঢাকায় চলে আসা। সেই থেকে এ শহরের জনারণ্যে মিশে যাওয়া। কবি গত হলেও স্মৃতি আগলানো তিনি আজ […]

নবযুগে সাংবাদিকতার পাশাপাশি নজরুল বেতারে কাজ করছিলেন তখন কাজী নজরুল ইসলাম। এমন সময়ই অর্থাৎ ১৯৪২ খ্রিস্টাব্দে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এতে তিনি বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেন। তার অসুস্থতা সম্বন্ধে সুষ্পষ্টরুপে জানা যায় ১৯৪২ খ্রিস্টাব্দের জুলাই মাসে। এরপর তাকে মূলত হোমিওপ্যাথি এবং আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা করানো হয়। কিন্তু এতে তার অবস্থার তেমন কোন উন্নতি হয়নি। সেই সময় তাকে […]

Continue reading …

যুদ্ধ শেষে কলকাতায় এসে নজরুল ৩২ নং কলেজ স্ট্রিটে বঙ্গীয় মুসলিম সাহিত্য সমিতির অফিসে বসবাস শুরু করেন কাজী নজরুল ইসলাম। তার সাথে থাকতেন এই সমিতির অন্যতম কর্মকর্তা মুজফ্‌ফর আহমদ। এখান থেকেই তার সাহিত্য-সাংবাদিকতা জীবনের মূল কাজগুলো শুরু হয়। প্রথম দিকেই মোসলেম ভারত, বঙ্গীয় মুসলমান সাহিত্য পত্রিকা, উপাসনা প্রভৃতি পত্রিকায় তার কিছু লেখা প্রকাশিত হয়। এর […]

Continue reading …

-মুহাম্মদ শামসুল হক শামস্ কবি ও গীতিকার । *** কাব্যমনস্ক বিবেকী সত্তার মানুষ, সত্য সাধনায় অসংকোচ প্রকাশের দুরন্ত সাহসের নির্ভীক ব্যক্তিত্ব শফিকুল ইসলামের লেখার ভান্ডারে সঞ্চিত পান্ডুলিপি থেকে ইতোমধ্যে তার বেশ কয়টি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে । আলোচিতব্য কাব্যগ্রন্থ “প্রত্যয়ী যাত্রা” তারই সাম্প্রতিক প্রয়াস । তার নিরলস প্রয়াস প্রমাণ করে যে, তার অপ্রতিরুদ্ধ্ গতি থামবার নয়, […]

Continue reading …

[ভারতের পশ্চিমবঙ্গে জন্মগ্রহণকারী ভারতীয় বাঙালী কবি হাবিলদার কাজী নজরুল ইসলামের ঔপনিবেশিক আমলের আবহে রচিত ‘চল চল চল ‘ গীতিকবিতাটি আমাদের দেশের  নির্ধারিত রণসঙ্গীত। কিন্তু সময় ও প্রেক্ষাপট অনেক বদলেছে। পুরনো দিনের এসব গান পেছনে ফেলে আজ নতুন সুরে নতুন গান গাইতে হবে। তবেই মানুষকে উজ্জীবিত করা যাবে স্বদেশ প্রেমের মন্ত্রে…] সম্মুখে বাধা আছে, পথ বন্ধুর […]

Continue reading …

কবি / সাহিত্যিক –  উপাধি – ছদ্মনাম অনন্ত বড়ু :  বড়ু চণ্ডীদাস অচিন্তকুমার সেনগুপ্ত :  নীহারিকা দেবী আব্দুল কাদির : ছান্দসিক কবি আলাওল:  মহাকবি আব্দুল করিম : সাহিত্য বিশারদ ঈশ্বর গুপ্ত : যুগসন্ধিক্ষণের কবি ঈশ্বরচন্দ্র -বিদ্যাসাগর কাজেম আল কোরায়েশী -কায়কোবাদ কাজী নজরুল ইসলাম -বিদ্রোহী কবি কালি প্রসন্ন সিংহ:    হুতোম পেঁচা গোবিন্দ্র দাস- স্বভাব কবি গোলাম মোস্তফা- কাব্য সুধাকর চারুচন্দ্র […]

Continue reading …

যেদিন আমি হারিয়ে যাব, বুঝবে সেদিন বুঝবে, অস্তপারের সন্ধ্যাতারায় আমার খবর পুছবে – বুঝবে সেদিন বুঝবে! ছবি আমার বুকে বেঁধে পাগল হয়ে কেঁদে কেঁদে ফিরবে মরু কানন গিরি, সাগর আকাশ বাতাস চিরি’ যেদিন আমায় খুঁজবে – বুঝবে সেদিন বুঝবে! স্বপন ভেঙে নিশুত্ রাতে জাগবে হঠাৎ চমকে, কাহার যেন চেনা-ছোওয়ায় উঠবে ও-বুক ছমকে, – জাগবে হঠাৎ […]

Continue reading …

পূজারিণী এত দিনে অবেলায়- প্রিয়তম! ধূলি-অন্ধ ঘূর্ণি সম দিবাযামী যবে আমি নেচে ফিরি র”ধিরাক্ত মরণ-খেলায়- এ দিনে অ-বেলায় জানিলাম, আমি তোমা’ জন্মে জন্মে চিনি। পূজারিণী! ঐ কন্ঠ, ও-কপোত- কাঁদানো রাগিণী, ঐ আখি, ঐ মুখ, ঐ ভুর”, ললাট, চিবুক, ঐ তব অপরূপ রূপ, ঐ তব দোলো-দোলো গতি-নৃত্য দুষ্ট দুল রাজহংসী জিনি’- চিনি সব চিনি। তাই আমি […]

Continue reading …

পাইনি ব’লে আজো তোমায় বাসছি ভালো, রাণি, মধ্যে সাগর, এ-পার ও-পার করছি কানাকানি! আমি এ-পার, তুমি ও-পার, মধ্যে কাঁদে বাধার পাথার ও-পার হ’তে ছায়া-তরু দাও তুমি হাত্‌ছানি, আমি মরু, পাইনে তোমার ছায়ার ছোঁওয়াখানি। নাম-শোনা দুই বন্ধু মোরা, হয়নি পরিচয়! আমার বুকে কাঁদছে আশা, তোমার বুকে ভয়! এই-পারী ঢেউ বাদল-বায়ে আছড়ে পড়ে তোমার পায়ে, আমার ঢেউ-এর […]

Continue reading …

-প্রথম তরঙ্গ- হে সিন্ধু, হে বন্ধু মোর, হে চির-বিরহী, হে অতৃপ্ত! রহি’ রহি’ কোন্‌ বেদনায় উদ্বেলিয়া ওঠ তুমি কানায় কানায়? কি কথা শুনাতে চাও, কারে কি কহিবে বন্ধু তুমি? প্রতীক্ষায় চেয়ে আছে উর্ধ্বে নীলা নিম্নে বেলা-ভুমি! কথা কও, হে দুরন্ত, বল, তব বুকে কেন এত ঢেউ জাগে, এত কলকল? কিসের এ অশান্ত গর্জন? দিবা নাই […]

Continue reading …

ভাবতে অবাক লাগে যারা নজরুলের প্রাপ্য অর্থ পরিশোধ করেনি, নজরুলকে কবি বলতে দ্বিধা করেছে, নজরুল সাহিত্যকে অবমূল্যায়ন করেছেন, নজরুলকে কাফের ফতোয়া দিয়েছেন–তারাই পরবর্তীকালে নজরুলকে সম্বর্ধনা দিয়েছেন; নজরুল তাদের চিনতে পারলে বিদ্রোহ করতেন এবং মেকি সম্বর্ধনায় রাজি হতেন না। এই উপমহাদেশের তথা সাড়া বিশ্বের নির্যাতিত মানুষের জাতীয় কবিকে যখন সাম্প্রদায়িক শক্তি বাংলাদেশের জাতীয় কবি অভিধায় অভিষিক্ত […]

Continue reading …

বিশ শতকের বিশের দশকের কথা। বাংলার কাব্যাকাশে তখন নোবেলবিজয়ী কবি রবীন্দ্রনাথ প্রখর রবির মতই দেদীপ্যমান। তাঁর একচ্ছত্র, উজ্জ্বল কাব্যচ্ছটায় বাকি কবিরা নিতান্তই ম্লান, অনুজ্জ্বল। এমনই এক সময় সেই আকাশে অত্যুজ্জ্বল ধূমকেতুর মত উদয় হলেন মাত্র বাইশ-তেইশ বছরের এক অর্বাচীন যুবক। নাম তাঁর কাজী নজরুল ইসলাম। একের পর এক বিপ্লব ও দ্রোহের কবিতা লিখে তিনি কাঁপিয়ে […]

Continue reading …
Page 1 of 212