Home » Archives by category » মুক্তিযুদ্ধ

বুকের ভেতর ঘৃণার আগুন – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

১৯৭১ সালের মে মাসের ৫ তারিখ বিকালবেলা পিরোজপুরের বলেশ্বরী নদীর ঘাটে পাকিস্তান মিলিটারি আমার বাবাকে গুলি করে হত্যা করেছিল। পুলিশ প্রশাসনের সবচেয়ে বড় কর্মকর্তা হিসেবে শুধু আমার বাবাকেই নয়, প্রশাসন এবং বিচার বিভাগের সবচেয়ে বড় কর্মকর্তা হিসেবে জনাব আব্দুর রাজ্জাক এবং জনাব মীজানুর রহমানকেও একই সঙ্গে গুলি করে তাদের সবার মৃতদেহ বলেশ্বরী নদীতে ফেলে দিয়েছিল। […]

  ১ গোলাম আযম মারা গেছে হাসপাতালে। টেলিভিশনে সংবাদটি শুনে জাহানারা কেমন স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন প্রথম। খানিকটা ধাতস্থ হতেই ভাবতে আরম্ভ করেছিলেন, এটা কেমন হলো? ভালো ভালো একুশ পদের খাবার খেয়ে, আরামে থেকেও বেজন্মাটা মারা গেল? দেশের কত কত মানুষের শ্রমের টাকা মিশে আছে সরকারী এই খরচের সঙ্গে। আছে তেমন মানুষদের টাকা যারা বংশ পরম্পরায় এই নরপশু […]

Continue reading …

বাংলাদেশের ইতিহাসের কুৎসিততম দিনটি পার করছে গোটা জাতি। গোলাম আযমের বিরূদ্ধে আজকে প্রকাশিত হওয়া রায়ের সংবাদ জানেন না এমন কোনো বাংলাদেশীর অস্তিত্ব থাকবার কথা নয়। এই অপমানজনক রায়ে স্তম্ভিত নন, স্বাধীনতার সপক্ষ শক্তির এমন কেউও আছেন বলে আমরা মনে করি না। যুদ্ধাপরাধী ও মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচারের দাবিতে বাংলাদেশের জনসাধারণ, মানবতার পক্ষশক্তি ও বাংলা ব্লগস্ফিয়ারের যে […]

Continue reading …

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় গোলাম আযম রাজনৈতিক অবস্থান নেন ও পাকিস্তান বিভক্তির বিরোধীতা করেন এবং বারবার আওয়ামী লীগ ও মুক্তিবাহিনীকে বিচ্ছিন্নতাবাদী হিসেবে আখ্যায়িত করতে থাকেন। পরবর্তীতে মুজিবনগর সরকার গঠন করা হয় এবং ২৬ মার্চ, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয়। আযমের বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য ২৫ মার্চের পর থেকে জামায়াতের মুখপত্র বলে পরিচিত দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকায় […]

Continue reading …

(উৎসর্গঃ ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ স্বাধীনতার জন্য শুরু হয়েছিল যে প্রাণপণ যুদ্ধ, তার অবসান ঘটে ১৬ ডিসেম্বর- আমাদের চূড়ান্ত বিজয়ের মধ্য দিয়ে। কিন্তু এ বিজয় এসেছিল এক সাগর রক্তের বিনিময়ে। তাই বিজয়ের আনন্দের বিপরীতে আছে স্বজন হারানোর বিষাদ। বিজয় দিবসের প্রভাতে শহীদদের উদ্দেশে আমরা বলি: আমরা তোমাদের ভুলব না।)    ‘একটি বাংলাদেশ, তুমি জাগ্রত জনতার/ […]

Continue reading …

এক। সতের জুলাই, উনিশশো একাত্তর। গ্রামের নাম সোনাইপুর। ছোট্ট একটি দোচালা ঘর। সামনে একটি উঠোন। বাড়ির একপাশে বিস্তীর্ণ ফসলি জমি আর অন্যপাশে মাটির রাস্তা। উঠোনে মাচা টাঙ্গিয়ে সবজি চাষ করা হয়েছে। কবির বাড়ির দরজার চৌকাঠে অনেকক্ষণ ধরে ঠায় বসে আছে। সকাল থেকে একটানা বৃষ্টি হচ্ছে। কবিরের পাশে তার ছোট বোন ফাতেমাও চুপচাপ বসে আছে। বৃষ্টিটা […]

Continue reading …

১৯৭১

10 Comments

কিছু শব্দের অপেক্ষায় আনোয়ারা খালা ভাত, ডাল, আলু ভর্তা রাধা হয়েছে সেই কখন। উঠোনে অবশেষে শোনা গেলো কিছু পায়ের শব্দ, দরজায় মৃদু টোকা । “খালা, দরজা খোল, আমরা, আমরা তুমার মুক্তিযোদ্ধা  ছাওয়াল গো খালা”। আনোয়ারা খালা দরজা খুলতেই, চার শিশু যেন ঝাঁপিয়ে পড়লো মায়ের বুকে। নিজের দুই ভাগ্নে মানিক, রতন আর তাদের বন্ধু শ্যামল, কিরণ। […]

Continue reading …

‘দেশটা মীরজাফরের দেশ হইয়া গেছে। হেই সোনার বাংলা এখণ আর নাই। সরকার আমাগো অনেক দেয় কিন্তু মীরজাফরেরা হেইডা আমাগো না দিয়া তারা ভাগ কইরা খায়।’ ঈসমাইল ফকির একজন সহযোগী মুক্তিযোদ্ধা। তিনি সরাসরি বন্ধুক হাতে যুদ্ধ করেননি। কিন্তু যুদ্ধের সময় জীবন বাজি রেখে মুক্তিযোদ্ধাদের নানাভাবে সাহায্য করেছেন। ১৯৭১ সালে মুক্তাগাছা থানার জামঘরা গ্রামে ৬০ জন মুক্তিযোদ্ধার […]

Continue reading …

কুলদা রায় এমএমআর জালাল লিও কুপার জেনোসাইড নামে একটি বই লিখেছেন। বাংলা অর্থ গণহত্যা। বইটির প্রচ্ছদ করা হয়েছে কিছু সংখ্যা দিয়ে। লেখা হয়েছে—১৯১৫ : ৮০০,০০০ আর্মেনিয়ান। ১৯৩৩-৪৫ : ৬০ লক্ষ ইহুদী। ১৯৭১ : ৩০ লক্ষ বাংলাদেশী। ১৯৭২-৭৫ : ১০০,০০০ হুটু। নিচে লাল কালিতে বড় করে লেখা জেনোসাইড। এই অংকের মানুষ গণহত্যার শিকার। এই আট লক্ষ, […]

Continue reading …

** স্বাধীনতা নেই আছে হাহাকার। হাহাকার সেদিনও ছিলো; এখনও নেভেনি সে আগুন এখনও পথে পড়ে থাকে রক্তের লাশ। এখনো উল্লাসে মাতে; হায়েনার দল এখনও দেখি বিবস্ত্রা নারী; পথে চলে বিকিয়ে দিতে সম্ভ্রম; দেয়ালে থাকে রাজাকার আর স্বৈারাচারের ব্যানার; ** কেউ বলে স্বাধীনতা নেই; -আমি বলি আছো তো; এই দেখো!! স্বাধীনতা আছে ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে নগ্ন নারীদের […]

Continue reading …

“আপু, আপু এতো শব্দ কেন? কিসের শব্দ? এতো জোরে কেন?” ছোট বোন নুমার হৈ চৈ আর ধাক্কা ধাক্কিতে রুমার ঘুম ভেঙ্গে গেল। রুমার ঘুম ছোট বেলা থেকেই কিছুটা গাঢ়। মায়ের কথায়, আমাদের রুমার গায়ের উপর দিয়ে ট্রেন চলে গেলেও ওর ঘুম ভাংবে না। নুমা অনেক কষ্টে রুমার ঘুম ভাঙ্গাল। চারিদিকে শুধু গোলা গুলির শব্দ আর […]

Continue reading …

  //তৌহিদ উল্লাহ শাকিল//   গ্রামের পাশে অশ্বথ গাছটি আজ দাঁড়িয়ে ঠায় ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে। ফি বছর গলায় দড়ি দিয়ে মরে কত দিশেহারা যুবক যুবতি কিংবা গাঁয়ের নির্যাতিত কোন বধু।রাত বিরাতে এখানে ছিনতাই হয় হাতে নিয়ে ছোরা কিংবা পিস্তল। বুকে কাপন উঠে এই পথ পেরুনোর সময়। এই বুঝি কেউ এল মানুষরূপী হায়না কিংবা অশরীরী অন্য […]

Continue reading …
Page 1 of 41234