সমুদ্রের ৫টি ভয়ংকর প্রানী

বিষয়: : ছবিশৈলী,জানা অজানা |

সাগরের পানিতে নেমে গোসল করতে কে না ভালোবাসি ? আর যদি সমুদ্রের মাঝখান হয়, যেখানে নীল পানি টলটল করে সেটা হলে তো কথাই নেই। সেন্ট-মার্টিনে বোধোহয় এরকম সুন্দর পরিষ্কার পানি চোখে পড়ে  ।
কিন্তু সাবধান !
গোলাপ ফুলেও কাটা থাকে, এরকম সমুদ্রে আছে কতগুলো ভয়ংকর প্রানী, যাদের হাতে পড়লে আপনাকে হয়তো পৃথিবী ত্যাগ করতে হতে পারে। চলুন দেখে আসি ফোরামে উপস্থিত সেরকম ৫ টি ভয়ংকর প্রানীকে ।

Box Jellyfish ( বক্স জেলিফিশ ):-

http://i.imgur.com/bu2SP.jpg

জেলীর মতো এবং  দেখতে খুবই সুন্দর এই প্রানীটি কিন্তু তার সৌন্দর্য্যের মতোই মারাত্নক ।এক একটা জেলিফিশের মধ্যে এরকম বিষ থাকে যে, সে একাই ৬০ জন মানুষ মেরে ফেলতে সক্ষম ! আর এর বিষের কার্যকারীতাও এতো দ্রুত যে, এর আক্রমনের ৩ মিনিটের মাথায় আপনার প্রানপাখী যমের হাত ধরে পালিয়ে যেতে বাধ্য হবে ! সুতরাং এর সৌন্দর্য্যে বিমোহিত হয়ে, এর ফেসবুক আইডি চাওয়ার দুঃসাহসটুকুও দেখাবেন না ।

Tiger shark ( টাইগার শার্ক ):-

http://i.imgur.com/EsAek.jpg

এই পেটুকটি আল্লাহর রহমতে সবই খায়, মানে সর্বভূক (!)। যে কোনো মাছ,ছোটো ডলফিন,স্কুইড,ছোটো হান্গর থেকে শুরু করে গাড়ির টায়ার খেতেও এর কোনো আপত্তি নেই। এরা স্বাভাবিক ভাবে ১ টন ওজনের হয়ে থাকে এবং ২০ ফুটেরও অধিক হয়ে থাকে। অতএব,এর সামনে সাধারনত না যাওয়াই ভালো। সামনে পেলে এ কিন্তু আপনাকে কাচ্চি ভাবতে মোটেও ভূল করবে না !

Stone Fish (প্রস্তর মাছ ) :-

http://i.imgur.com/VNln0.jpg

পাথর মাছ বা স্টোন ফিশ দুই কারনে ভয়ংকর প্রানীর লিস্টে জায়গা করে নিয়েছে। ১মটি হলো, এটি সবচেয়ে বিষাক্ত মাছ। ২য় কারন হলো এর পাথুরে আবরন ক্যামোফ্লেজের জন্য খুবই সাংঘাতিক কাজের।
স্বাভাবিকভাবে এ আপনাকে কিছুই বলবে না, তবে যদি আপনি তার কুশলাদী জানতে চান তবে এও কিন্তু আপনার কুশলাদী জানতে ভূল করবে না ! এই সাধু প্রানিটির বিষের আক্রান্তে টেম্পরারী পন্গু বা প্যারালাইসড হয়ে যেতে পারেন, আর যদি খুব দ্রুত চিকিৎসা না নেওয়া যায়, তবে যম এসে কিন্তু হ্যালো জানাতে ভুলবে না ।অতএব ভুলেও একে পাথর মনে করে এর উপর পা ফেলবেন না। আপনার যাই হোক, আমরা কিন্তু সমুদ্রের নীচে  ডাক্তার নিয়ে পৌছতে পারবো না  tongue

Puffer Fish :-

http://i.imgur.com/Yedbk.jpg

মারাত্নকভাবে প্রানঘাতী বিষ টেট্রোডোটক্সিন এই মাছের ফুলে থাকা শরীরে বিদ্যমান।যা, প্রানীর মৃত্যু এনে দিতে যথেষ্ট পরিমানে সাহায্য করে ! তবে জাপানের গবেষকরা এর শরীর থেকে বিষ আলাদা করতে সক্ষম হয়েছেন। ফলে বিষ আলাদা করলে এটিকে সুস্বাদু খাবার হিসেবে খেতে আপত্তি নেই !

Sea Snake:-

http://i.imgur.com/e34m9.jpg

সাধারনত সাপকে সবাই ভয় পায়। কিন্তু এই সাপ সমুদ্রে লুকায়িত থাকে বা গভীরে থাকে। ফলে এটি মানুষের জন্য সবসময় ক্ষতির কারন নাও হতে পারে । কিন্তু এর বিষ এতো মারাত্নক যে, এক কামড়ে মুহুর্তে শিকারকে প্যারালাইসড করতে পারে এবং কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ভিকটিম মারা যাতে পারে ! অতএব সমুদ্রের বেশী গভীরে না যাওয়াই ভালো।

-লেখক: ইমরান আহমেদ

khalid2008@gmail.com'
আমার জামায় আঁকা চাঁদ, আমার রক্তে যায় ডুবে, আমার নামেতে সেজে সূর্য, আমারই রক্ত থেকে উঠে আসে পূবে, সকল সফল মৃত শুয়ে আছে, পিঠে নিয়ে বরফের চাঁই, আমি মুখ ফিরিয়ে চলে যাই।
শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।

মন্তব্য করার জন্য আপনাকে অবশ্যই লগইন করতে হবে। Login