মুক্তমনা

Filed under: ‌কবিতা |
মুক্তমনা
– জসিম উদ্দিন জয়
আমি পাহাড়ি  ঝর্নাকে প্রশ্ন করেছি
তোমার চোখে এত জল,
চোখের জলে নামে ঢল,
সুন্দরীতম রূপের ঝলমল,
কে তুমি তোমার  এত বল ?
পাহাড়ি ঝর্না হেসে বলে আমি মুক্তমনা,
বিলিয়ে দেয় রূপসাগরের যত ক্ষুদ্রকনা,
মিলিয়ে দেয় মুক্তমনাদের যত শব্দকনা।
আমি সাগরের টেউকে প্রশ্ন করেছি
তোমার বুকে কেন এত গর্জন,
বাতাসপ্রাণে ছুটে বেড়ানো তজর্ন,
অসীম আকাশে সীমাহীন অর্জন ?
সাগর হেসে বলে আমি মুক্ত স্বাধীন,
আমার ভুবনে কোন প্রাণী নেই পরাধীন।
দুর্দান্ত গতিতে চলা আমার অনন্ত পথ,
এ পথ রুদ্ধ করে নেই কারও হিম্মৎ।
আমি আকাশ কে প্রশ্ন করেছি
তোমার সীমনা কোথায়,
মেঘের ভেলায় ভাসতে ভাসতে যেথায়,
সীমানা খোজার চেষ্টাটা ছিলো বৃথায় ?
আকাশ হেসে বলে আমি অসীম আসমান
স্বযত্নে লালিত পৃথিবীর প্রকৃতি আর জমিন
চাষীরা করে চাষ ঘরে নেয় ধান
মুক্তমনে ছুটে চলা বাউলের গান ।
আমি মুক্তমনা মানুষকে প্রশ্ন করেছি
তোমার কেন এত মুক্ত চিন্তা ?
মুক্তমনা মানুষটি হেসে বলে,
বিলিয়ে দিতে চাই পৃথিবীর যত সভ্য,
সৃষ্টিসুখের উল্ল্যাসে রচনা আর কাব্য ।
জালবো আলো, খোচাবো যত অন্ধকার,
কুংস্কার রুদ্ধ করে খুলবো আমি বদ্ধদ্বার ।
আমি কবিকে প্রশ্ন করেছি
এত কথা কেন  হৃদয়ে মাঝে,
সময়ের শত বাধা শত কাজে ।
কবি হেসে বলে
আমি কবি যুগ থেকে যুগান্তরে আমি শুদ্ধ,
কার এমন সাহস কবিদের হাত করে বদ্ধ,
মুুক্তচিন্তার  মুক্তমনাদের কন্ঠ করে রুদ্ধ ।
আমরা আছি, আমরা কবি, আমরা জোয়ান,
জঙ্গীবাদ সাহসায় যদি হও আগুয়ান ,
আজ সূর্য্যদয় হাজার কবির ভীর,
স্পর্দা তোমার পা বাড়লে কাটবো তোমার শীর।
তোমার কালো হাত আজ হবে বলিদান,
চারিদিকে মুক্তমনা মুক্তির জয়গান।

শৈলী.কম- মাতৃভাষা বাংলায় একটি উন্মুক্ত ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুবিধা প্রদানকারী প্ল‍্যাটফর্ম এবং ম্যাগাজিন। এখানে ব্লগারদের প্রকাশিত লেখা, মন্তব‍্য, ছবি, অডিও, ভিডিও বা যাবতীয় কার্যকলাপের সম্পূর্ণ দায় শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট প্রকাশকারীর। ধন্যবাদ।

মন্তব্য করুন