Home » Archives by category » ‌কবিতা » পদ্য

সনেটের মতোই নির্দিষ্ট মাত্রা ও পর্বভিত্তিক ৬ পঙক্তির পদ্য “শামেরিক”

ছড়ার একমাত্র ছন্দ স্বরবৃত্তচালের নতুন এক পদ্যরীতি হচ্ছে ‘শামেরিক।’ ৬ পঙক্তির শামেরিকের চরিত্রগত কাঠামো হয় স্রেফ ছড়ারই মতন। শামেরিক মূলত ব্যঙ্গাত্মক, রসাত্মক, ঘৃণাত্মক, প্রতিবাদী ও অর্থবোধক ছড়া যা ক+ক, খ+খ ও ক+ক চালের। এর ১ম দু’পঙক্তি ও শেষ দু’পঙক্তির মাত্রাসংখ্যা হয় মোট ১৪ বা ১৫টি করে। বাংলাসাহিত্যে প্রচলিত একমাত্র অক্ষরবৃত্তে রচিত ১৪ মাত্রা ও ১৪ […]

প্রত্যর্পন

No Comment

আকশের কাছে আমি চেয়েছি উদারতাটুকু তার বুক ভরা চাঁদতারার ঐশ্বর্য চাইনি। বাতাসের কাছে আমি মহাপ্রলয়ের শক্তি নয় উন্মুক্ততাটুকু চেয়েছি, তাও পাইনি। বৃষ্টির কাছে শুধু তার রিমঝিম সুরটুকু ছিল চাওয়া, মাঠঘাট ডোবা সীমাহীন জল নয়। বনানীর কাছে সাধ ছিল তার সজীবতাটুকু পাওয়া, সাজনো মাখানো বিশাল অরন্যময়। সবশেষে গেছি কুসুমের কাছে পেতে তার সুমিষ্ট সুঘ্রাণ চাইনি তার […]

Continue reading …

আপনি তখনো মাননীয় হয়ে উঠেননি হে মাননীয় আমরা তখন টগবগে যুবক তীরের ফলার মত চকচকে ভয়ংকর! উদ্যত ছিলার টানটান পিছু হটায় ব্যস্ত সবাই প্রচন্ড বেগে সামনে আগাবো বলে। ঐ সময় আপনার অগোছাল ঘর ছড়ানো ছিটানো তীরের ফলাগুলোও এক হতে পারছিল না আপনি বিষম দায়ে বিবশ অনুভবে রিক্ত প্রায় তখন আমরা-ই কিন্তু প্রচন্ড বেগে সামনে এগিয়েছিলাম […]

Continue reading …

হাজার বছর ধরে আমি পথ হাঁটিতেছি পৃথিবীর পথে, সিংহল-সমুদ্র থেকে নিশীথের অন্ধকারে মালয়-সাগরে অনেক ঘুরেছি আমি; বিম্বিসার-অশোকের ধূসর জগতে সেখানে ছিলাম আমি; আরও দূর অন্ধকারে বিদর্ভ নগরে; আমি ক্লান্ত প্রাণ এক, চারিদিকে জীবনের সমুদ্র সফেন, আমারে দু-দন্ড শান্তি দিয়েছিল নাটোরেরবনলতা সেন ।   চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা, মুখ তার শ্রাবস্তীর কারুকার্য; অতিদূর সমুদ্রের […]

Continue reading …

সত্য উন্মোচনে অমীমাংসিত প্রশ্ন থেকে যায় জীবনবোধ, যাপনের সমস্ত স্বপ্ন সংর্কীর্ণ যখন নগ্ন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অলংকৃত স্বাধীনতার শুভ্র মেঘ মায়াবিনী যাদুর মন্ত্রে বন্দি বোমার ভয়ে বিপন্ন বাংলাদেশ শাসন, ত্রাস আর মৃত্যুপুরীর নগরীর মতো অনেক সম্ভ্রম হারিয়ে এবারও নারীই নগরীর প্রধান পুরুষরা সব নপুংসক আবার যদি যৌনাঙ্গের বলি হতে হয় এই ভয়ে ঘরের ভিতর ঘরহীন তারা […]

Continue reading …

সনাতন

2 Comments

শেয়ালের ডাকে সারারাত ঘুম হয়নি মুরগির মুরগির ডাকেই ঘুম ভাঙ্গল আমার প্রতিদিনের মতো আরেকটা রাত শেষ হল। বাড়ির প্রভুভক্ত কুকুরের ঘেউ ঘেউ রাজ হাস গুলোর জলকেলি খেলা সবই প্রতিদিনের মতো পুরোনো। ওই যে দেখা যাচ্ছে লালনের হাতে একতারা হু! ওটা চিরকালই এক রকম ফজরের নামাজের সেজদা, প্যাগোডার প্রার্থনা মূর্তির সামনে নতজানু ঠাকুর কিংবা যীশুর পেরেক […]

Continue reading …

মন পোড়া আগুন

No Comment

মন পোড়া আগুন আমি আমার মাঝে, চাওয়ার মিথ্যা বীজ বুনেছি; সেই মিথ্যায় নষ্ট খানিক নদী জলে ডুবেছি; আঁধারে রাতভর কাঙাল তবু মুছে যায় না সরব থিতানো জলে। চাওয়ায় নাকি নষ্ট মিলে? আঁধার ঘ্রাণে কষ্ট ভাসে; জোনাক আলোয় বাঁচে সর্বনাশ সেই সর্বনাশ ডুব সাঁতারে; অক্টোপাসে শরীর জাপটে ধরে নষ্ট ঘুনে বিপন্ন জীবন। মন পোড়া আগুন শরীর […]

Continue reading …

সবকিছু শেষ হয়

No Comment

সবকিছু শেষ হয় সময় ব্যবধানে স্রৌতস্বিণী শুকায় থু-থু জমে আড়ষ্টহয় রতন বাউলের সুর থামে দরদমাখা গান। পৃথিবীরচিত্ত থামবে-থামবে করছে ক্ষুদার পাষাণে আড়ষ্ট যখন চিত্ত বিধর্ব নগরে দৈব কত কি কামনা সদ্য জন্মানো ভূমিতে ফসল সয়লাবে। পাথর সে ক্ষুদ্ধ অভিশাপে তপ্ত হয় নগর হতে নাগরিতে জমে স্মৃতিকথণ প্রবাল প্রহারে দিক-বিদিক ছুটে উত্তপ্ত শোধ খড়-কুঠরে আকড়ে যায় […]

Continue reading …

হাত রাখা হাতে

No Comment

অচলা!!! নীভির অরণ্যে থমকে থাকা বেলায় শালিকের ঝাঁকে শুনেছ কি! শুনেছ কি; গভীর অরণ্যও ঢালে সমকালের পায়ে-পায়ে খেয়ালি মাখা চুমো উচ্ছ্বাসে! উচ্ছ্বাসে; দেখেছ সম্রাজ্ঞী তুমি শাহজাহানের তাজমহলে, সহাস্য স্বপ্নবাঁধা অন্তর বাসনার তরে! বাসনার তরে; ঐ ছায়ালোকের কায়া ছেড়ে যাও দূর হেয়ালি পথে যেখানে শূণ্যমরূ পূর্ণ হত যতনে! যতনে; রাখতে চেয়েছ আগলে যতদিন না সূর্য্য উদীয়মান […]

Continue reading …

বোধের কলঙ্কে আঁকা হত্যাযজ্ঞ , মানুষ হত্যায় কি সে মুক্তি? পৃথিবী জুড়ে প্রত্যহ মানুষ হত্যার খেলা অথচ এই পৃথিবী এই মানুষের জন্য,তাহলে কেন এই অনর্থক রক্ত বন্যা মানুষ মানুষের জন্য রক্তপাত কলঙ্ক। রক্ত নেশায় পশুরা হত্যাযজ্ঞে মাতে কারন তারা বোধ হীন প্রাণী,তাদের এ হত্যা সহসা ক্ষুধার জন্য কিন্তু আমরা মানুষ প্রাণীকূলের শ্রেষ্ঠ জীব,বার বার কেন […]

Continue reading …

শ্রাবণ সারনি উল্টাতেই, কখন যে ছেয়ে গেল, মেঘের অমল ধবল রুপের ছোটায় আকাশ শ্রাবণ জলের সিক্ততা প্রতিয়মান, বানের জলে শেওলা বিবর জলডুবা পানকৌড়ির শ্রাবণ মুগ্ধতা মাখা গা। বিলের ধার ঘেঁসে সবুজ ডগায় কাঁশবন ঝাড়, পথহারা পাতিহাসের, বন্য হবার নিবিড় স্বাধিনতায় দল বেঁধে আশ্রয়ে ফিরে, সাঁঝের লালিমায় চিক চিকে ঢেউয়ে উদাস মেঘের সাজ যেন আকাশের গায়। […]

Continue reading …

মনোলি-০১ রাতের প্রদ্বীপটাকে জ্বালিয়ে রাখতে পারিনি পারিনি শরীর কিংবা মনকে আশ্রয়ে রাখতে বাতাসের অস্ফালন বেয়ে যখন জ্বালাবার ভরশাও শেষ হয় তখন উন্মত্ত আঁধারে ঢলে পড়া উগ্রঝড়ে বড় দিশেহারা হই তোর কষ্টতুর ঐ সাগরের ফেণিলের গর্জনের মতো নিঃশ্বাসে, আমি আজ বড় অসহায় হয়ে যাই; সুশান্ত। অধিক কিছু তো চাওয়ার ছিলনা তোর পায়ে সঁপে দেওয়া জীবন-যৌবনের কাব্যিক […]

Continue reading …
Page 1 of 26123Next ›Last »