সাহিত্য

শেষ বিকেলের চিঠি
 এপ্রিল 20, 2020  শৈলী বাহক

শেষ বিকেলের চিঠি

পড়ন্ত বিকেল।জানালার ধারে দাঁড়িয়ে আকাশের সাদা মেঘ দেখছি।কোনো হাওয়া নেই।চারদিকে থমথমে হয়ে রয়েছে।মেঘগুলোও ভাসছে না;এক জায়গায়ই স্থির রয়েছে।গাছের একটা পাতাও নড়ছে না।ঝড় আসার পূর্বাভাস তবে…

এত কাছে সব
 ফেব্রুয়ারী 27, 2020  শৈলী বাহক

এত কাছে সব

– রবীন দত্ত “ক্রমশঃ সন্ধ্যা নেমে আসছে ঠাকুরমা । ফিরতে যে অনেক দেরী হয়ে যাবে । এখান থেকে বাস ধরে করিমগঞ্জ তাও ঘণ্টা চারেকের রাস্তা…

ছোট গল্প: “ঘাম তত্ত্ব”
 নভেম্বর 30, 2018  শৈলী বাহক

ছোট গল্প: “ঘাম তত্ত্ব”

যুবকের চুলে ধুলা আর বালির সহাবস্থান। শরীরে পশমের ভাজে ভাজে বহুদিন সাবান না মাখার ফলে কালো ময়লার প্যারালাল আবরণ। সেমি লং পাঞ্জাবীর এখানে সেখানে প্রস্তর…

অনুগল্পঃ প্রিয়তমা
 অক্টোবর 13, 2017  শৈলী টাইপরাইটার

অনুগল্পঃ প্রিয়তমা

…. “নওশীন! এই নওশীন!” বাথরুমের কলটা ছাড়া, হয়তো তাই ডাক শুনছে না। তূর্যের ফোনটা বাজছে, আনমনে থাকায় খেয়াল করা হয়নি। না, তূর্যের নয়। নওশীনের ফোন…

জয় বাংলা
 মার্চ 3, 2017  জসিম উদ্দিন জয়

জয় বাংলা

জসিম উদ্দিন জয় স্বাধীনতা মানে, লাল-সবুজে উড়ন্ত পাখি, দুরন্ত কিশোরীর ফুটন্ত ফুলে মুগ্ধ আঁখি। স্বাধীনতা মানে, মায়ের শুভ্র হাসি, রাখাল বালকের মিষ্টি সুরের বাঁশি। স্বাধীনতা…

 জসিম উদ্দিন জয়

গল্প: শেফালি

গল্প: শেফালি

জসিম উদ্দিন জয়: করিডোরের রেলিং ঘেষে এক প্রান্তে ঠাইঁ দাঁড়িয়ে আছে।  তখন মাঝরাত । শহরের বাতিগুলো এক এক করে নিবতে লাগলো ।  অসহায় দৃষ্টিতে তাকিঁয়ে বাহিরপানে। শীতের আকাশ কুয়াশায় আচ্ছন্ন। হালকা কুয়াশাবৃষ্টির প্রচন্ড ঠান্ডা।  শেফালির গায়ে জড়িয়ে আছে শুধুমাত্র একটি বাসন্তি রংয়ের শাড়ী। টানটান দেহ ।  লাবন্যের ছড়াছড়ি এই দেহটিকে এক সময় শেফালির কাছে মনে হতো […]

 রাজন্য রুহানি

অধরা চাঁদের আলো

অধরা চাঁদের আলো

    ১. ত্রিশূল আখ্যানে কোনো কল্পতরুর অহম যদি মনলোভা ফুলে ফুলে ডেকে নেয় শিল্পের ভ্রমর, অনন্ত আংটির বেড়ি পায়ে আকর্ষিক মধ্যমায় অধরা চাঁদের আলো যেন বিজন কুটির। ১৮.১২.১৫     ২. সমস্ত প্রণয় বীজ বুনে দেয়া জীর্ণ খোল-করতালে ছুটে আসে রবোটিক চিন্তার নিয়নকাঠি, “কোথায় জীয়নকাঠির দিন? শেকড়বাকর ছিঁড়ে যার খোঁজে হারিয়েছি ঋত সঞ্জীবনী, আয়নার […]

 শৈলী টাইপরাইটার

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়: নিষ্কৃতি

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়: নিষ্কৃতি

ভবানীপুরের চাটুয্যেরা একান্নবর্তী পরিবার। দুই সহোদর গিরীশ ও হরিশ এবং খুড়তুতো ছোট ভাই রমেশ। পূর্বে ইহাদের পৈতৃক বাটী ও বিষয়-সম্পত্তি রূপনারায়ণ নদের তীরে হাওড়া জেলার ছোট-বিষ্ণুপুর গ্রামে ছিল। তখন গিরীশের পিতা ভবানী চাটুয্যের অবস্থাও ভাল ছিল। কিন্তু, হঠাৎ একসময়ে রূপনারায়ণ এমনি প্রচণ্ড ক্ষুধায় ভবানীর জমি-জায়গা, পুকুর-বাগান গিলিতে শুরু করিলেন যে, বছর পাঁচ-ছয়ের মধ্যে প্রায় কিছুই […]